লক্ষ্মীপুরে ভাগিনাকে মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে মামা খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ভাগিনাকে মারধরের ঘটনার প্রতিবাদ করায় মামা আনিছুর রহমান আজাদ (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এসময় আহত হয় ইব্রাহিম মিয়া (৩৫) নামে আরেক ব্যক্তি। আশঙ্কাজন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সোমবার (৮জুলাই) রাত ৮টার দিকে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের উত্তর ভাটরা গ্রামের নন্দিয়ারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘাতক মহসিনকে আটক করে  এবং  নিহতের লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত আনিছুর রহমান একই গ্রামের নান্দিয়ারা এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। একজন আওয়ামীলীগ কর্মী।  আটক মহসিন একই গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজাদের ভাগিনা টিটুকে মারধর করে মহসিন। মারধরের শিকার টিটু বিষয়টি তার মামা আজাদকে জানায়। পরে আজাদ তার ভাগিনাকে মারধরের প্রতিবাদ করতে মহসিনের কাছে গেলে উভয়ের মাঝে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে দাও দিয়ে মামা আজাদকে এলোপাতারি কুপিয়ে হত্যা করে মহসিন। এসময় ইব্রাহিম মিয়া নামে আরেক ব্যক্তিকে কুপিয়ে আহত করে সে। পরে স্থানীয়রা আহত ইব্রাহিমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন হত্যার ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকারী মোঃ মহসিন নামের একজনকে আটক করেছি। হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।