গাধা যখন উঁচু আসনে

মোল্লা নাসিরুদ্দিন একবার নিজের পোষা গাধাটিকে বাড়ির ছাদে নিয়ে গেলেন। কিন্তু গাধা ছাদে উঠে ,আর নামতে চাইছে না। বহু চেষ্টা বিফলে গেলো। গাধা মোটেও নামতে চাইছে না। বাধ্য হয়ে মোল্লা নিচে নেমে এসে, গাধার জন্য অপেক্ষা করতে লাগলেন।

আধ ঘন্টা, এক ঘন্টা, এভাবে ঘন্টা দুয়েক পার হয়ে গেলো, তবুও গাধা নামছে না। মোল্লা নাসিরুদ্দিন অনুভব করলেন, তার বাড়ির জীর্ণ-শীর্ণ ছাদ, গাধা পদাঘাত করে, ভেঙে ফেলতে চাইছে।

মোল্লা ভয় পেয়ে গেলেন। কমজোর ছাদ, সামনে বর্ষাকাল, বিপদ আসন্ন। ছাদ ভেঙে গেলে, ঝড়-জলের দিনে থাকবেন কোথায়! বাধ্য হয়ে আবার ছাদে উঠলেন, গাধাকে নিচে নামানোর প্রচেষ্টায়। কিন্তু গাধা নামতে চাইছে না। ক্রমাগত লাথি মেরে চলেছে, ছাদের উপর।

মোল্লা শেষ প্রচেষ্টা করতে লাগলেন। গাধাকে ধাক্কা মেরে, নিচে নামানোর চেষ্টা করতেই,, গাধা মোল্লাকে কয়েক- বার লাথি মেরে, ছাদ থেকে নিচে ফেলে দিলো। মোল্লা ভীষণ রকম আহত হয়ে, মাটিতে পড়ে রয়েছেন।

ওদিকে গাধা ছাদ ভেঙে, ঘরের মেঝেতে পড়ে গেলো। মোল্লা রক্তাক্ত, গাধাও রক্তাক্ত। মোল্লার হাত ভেঙেছে, কোমরে ব্যাথা, ওদিকে গাধাও প্রচণ্ড আঘাত পেয়ে, উঠে দাঁড়াতে পারছে না। নির্ঘাত গাধার পা ভেঙে গিয়েছে।

মোল্লা নাসিরুদ্দিন সেদিন ভাবলেন, “গাধাকে কখনোই উঁচু আসনে নিয়ে যেতে নেই।” তাহলে গাধা: প্রথমত-যে যায়গায় নিয়ে যাবেন, সেই জায়গার ক্ষতি করবে। দ্বিতীয়ত-যিনি নিয়ে যাবেন, তাঁর ক্ষতি করবে। তৃতীয়ত-নিজেরও ক্ষতি করবে। তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।