ভিডিও ফুটেজকে বিচারে প্রধান সাক্ষী মেনে নেয়ার আইন হোক

আইন করা হোক, ভিডিও ফুটেজকে বিচারে প্রধান সাক্ষী হিসাবে মেনে নেওয়া হবে। সাক্ষী দিতে এসে মানুষ কেনাবেচা হয়ে গেলেও ডিজিটাল সাক্ষ্য মিথ্যা বলে না।

তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধারকৃত ভিডিওর একটা লিখিত ডেসক্রিপশনও কেসের সাথে গেঁথে দিতে হবে যাতে কোন বানোয়াট ভিডিও পরে এড না করতে পারে।

যে ক্ষেত্রে অডিও ভিডিও জেনুইনলি পাওয়া যাবে সে ক্ষেত্রে মৌখিক সাক্ষ্যকে গৌন ও ডিজিটাল সাক্ষ্যকে মুখ্য সাক্ষ্য হিসাবে ধরে বিচার করলে আদালতে বিচার করতে গিয়ে মাঝখানের ডাক্তার বাবুর ‘কোপের চিহ্ন পাওয়া যায়নি’ মর্মে রিপোর্ট আর পুলিশের তদন্তের বারোয়ারী বর্ণনা ঘাটতে হবে না। এবং ফাঁকফোকরে বিশ্বজিৎ হত্যার মত চাঞ্চল্যকর মামলায়ও আসামিরা অনুকম্পা পাবে না।মানুষ সকল চিন্তা করে দেখেন।

আইনের চোখ যেহেতু অন্ধ সেহেতু আইনকে অন্তত ব্রিটিশদের ১৮৭২ সাল থেকে টেনে এনে বর্তমানের ২০১৯ সালে দাঁড় করানো উচিত! কি বলেন?

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

লেখক : আরাফাত বিন আবু তাহের, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, বরগুনা ।

জন্মস্থান  : লক্ষ্মীপুর।