লক্ষ্মীপুর ডিবেট এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ইফতার পার্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিতর্ক চর্চার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের নতুন চিন্তা ও যুক্তি উপস্থাপনের ক্ষমতা সৃষ্টি হচ্ছে। নতুন ও যোগ্য নেতৃত্ব গড়ার ক্ষেত্রেও বিতর্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এজন্য শহরাঞ্চলের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি গ্রামীণ শিক্ষার্থীদেরও বিতর্ক চর্চার সুযোগ করে দেওয়া প্রয়োজন। কারণ বিতর্কের মাধ্যমে মানুষের জ্ঞানের ক্ষুধা বাড়ে।

লক্ষ্মীপুর ডিবেট এসোসিয়েশনের উদ্যোগে আয়োজিত ‘সংসদীয় বিতর্ক ও ইফতার পার্টি’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল। শুক্রবার (১৭ মে) সন্ধ্যায় জেলা শহরের রোজ গার্ডেন চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ও লক্ষ্মীপুর ডিবেট এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আবদুল মাজেদ আজাদ বলেন, বিতর্ক চর্চায় জেলার শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিগত ১৮ বছর ধরে কাজ করছে এই সংগঠন। আমরা চেষ্টা করছি, বিতর্ক চর্চার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জ্ঞানের পরিধি আরো সমৃদ্ধ করতে। তিনি আরো বলেন, আগামী জুন অথবা জুলাই মাসের মধ্যে বৃহত্তর নোয়াখালী বিতর্ক উৎসব অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনীসহ বিভিন্ন জেলার বিতার্কিক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করবেন।

সংগঠনের সভাপতি আবু সায়েম মাসুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক সালাহ্ উদ্দিন পাঠান, লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কামাল হোসেন, জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট জোবায়ের আল মামুন, প্রতাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হারুনুর রশিদ, কামানখোলা অলি উল্যাহ মুসলিম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষক মোহাম্মদ ছায়েদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে লক্ষ্মীপুর ডিবেট এসোসিয়েশনের সদস্যদের অংশগ্রহণে একটি ছায়া সংসদীয় বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্কের বিষয় ছিল, ‘নারী নির্যাতন প্রতিরোধে কার্যকরি- আইন নাকি জনসচেতনতা?’

 

শীর্ষ সংবাদ/আরএইচএ