ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’তে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাগুলোতে ত্রাণ নিয়ে যাওয়ার জন্য দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

লন্ডনে অবস্থানরত সরকার প্রধান আজ শনিবার (০৪ মে) রাত সাড়ে ৮টায় আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে ফোন করে এ নির্দেশনা দেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

এ বিষয় জাহাঙ্গীর কবির নানক গণমাধ্যমকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফণীর আঘাতে উপকূলীয় এলাকার ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন। ফণীর আঘাতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কম হওয়ায় আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করেন তিনি।

ফোনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্গত এলাকায় কেউ যেন অনাহারে না থাকে। যেসব এলাকায় ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রয়োজনে সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনীসহ সরকারি বিভাগীয় সংস্থাকে কাজে লাগিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালাতে হবে।’ এ সময় তিনি সরকারের পাশাপাশি দলীয়ভাবে নেতাকর্মীদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে ত্রাণ নিয়ে দুর্গত এলাকায় যাওয়ার নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে হবে। যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়, প্রশাসনের পাশাপাশি দলীয়ভাবে ফণীর ক্ষয়ক্ষতি মনিটরিং করা হচ্ছে। আশঙ্কা অনুযায়ী ক্ষয়ক্ষতি না হওয়ায় সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তারা।

এ সময় কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, তথ্য সম্পাদক আফজাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।