সারাদেশে এক নিয়মে খতম তারাবি পড়ার আহ্বান

আসন্ন রমজানে বাংলাদেশের সব মসজিদে একই পদ্ধতিতে খতম তারাবি পড়ার আহ্বান জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

তারাবির নামাজে প্রথম ৬ দিনে দেড় পারা করে ৯ পারা এবং বাকি ২১ দিনে ১ পারা করে ২১ পারা তিলাওয়াত করলে ২৭ রমজান রাতে শেষ হবে। এভাবে সারা দেশে একসঙ্গে ২৭ রমজান লাইলাতুল কদরে কোরআন খতমের নির্দেশনা দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

বৃহস্পতিবার ইফার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই আহ্বান জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সব মসজিদে একই পদ্ধতিতে খতম তারাবি না পড়লে মুসল্লিদের মধ্যে অতৃপ্তি থাকে এবং তারা তারাবির সওয়াব থেকেও বঞ্চিত হন। তাই বিভিন্ন মসজিদে খতম তারাবি পড়লেও যেন মুসল্লিদের কোরআন খতম শেষ করতে কোনো সমস্যা না হয়, তাই সব মসজিদে এক নিয়মে খতম তারাবি পড়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

দেশের শীর্ষ আলেম ও ইমামদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এই পদ্ধতি ঠিক করা হয়েছে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,বিভিন্ন স্থানে যাতায়াতকারী মুসল্লিদের পক্ষে কুরআন খতমের ধারাবাহিকতা রক্ষা না করতে না পারলে তাদের মধ্যে মানসিক অতৃপ্তি ও অতুষ্টি অনুভূত হয়।

এদিকে পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে এবারও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) কল সেন্টার চালু করেছে।

যে কোনো মোবাইল ফোন অপারেটর থেকে ‘৩৩৩’ নম্বরে কল করে নামাজ, রোজা, জাকাত ও ফিতরা সম্পর্কে বিভিন্ন মাসয়ালা-মাসায়েল এবং সাহরি ও ইফতারের সময় জানা যাবে।

বৃহস্পতিবার ইফা থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

‘৩৩৩’ নম্বরের কল সেন্টারটি গত বছর রমজান মাস থেকে চালু করা হয়। ‘৩৩৩’ এ ফোন করে ইসলামিক সেবা নিতে সাধারণ কলচার্জ প্রযোজ্য হবে।