দুর্গন্ধযুক্ত ডাস্টবিনে ব্যারিস্টার সুমন

একের পর এক সামাজিক আন্দোলনে ভুমিকা নেওয়া ব্যারিস্টার সুমন এবার নেমে পড়ছে দুর্গন্ধযুক্ত ডাস্টবিনে। এসময় তিনি ছোট ছোট বাচ্চাদের বাঁচানোর আহবান জানায়।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন ফেসবুক লাইভে এসে বলেন, ‘আমি যেখানে দাঁড়াইয়া আছি সেইটা একটা ময়লার ডাস্টবিন। এইটা ডাস্টবিন থাকতেই পারে। কিন্তু আমি এ কারণে লাইভে আসলাম এইটা একটা প্রাইমারি স্কুলের সামনে। একদমক মেইন গেইটের সামনে।

তিনি বলেন, ‘১৫০০ বাচ্চা যে স্কুলএ পড়াশোনা করে, তাদের মুখে গেইটে ডাস্টবিনটা আছে। আমি জজকোর্ট থেকে হাইকোর্ট যাওয়ার পথে গুলিস্তানে সৈয়দ নজরুল ইসলাম সড়কের সামনে নেই ডাস্টবিনটা পাবেন।’

এ সময় তিনি ডস্টবিনটি ওই স্কুলের সামনে থেকে অপসারণ করার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

হবিগঞ্জের সায়েদুল হক সুমন ২০০৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ সম্পন্ন করার পর ২০০৯ সালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে চলে যান। সেখানে সিটি ইউনিভার্সিটি থেকে বার অ্যাট ল’ করেন তিনি। সুপ্রিম কোর্টের এ আইনজীবী এখন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর। আইনজীবী হলেও সুমন পরিচিতমুখ হয়ে উঠেছেন অনিয়মের বিরুদ্ধে তার ‘ফেসবুক লাইভ আন্দোলন’র মাধ্যমে।

অনিয়মের বিরুদ্ধে ‘ফেসবুক লাইভ’ আন্দোলন নিয়ে সায়েদুল হক সুমন বলেন, প্রযুক্তির এমন সদ্ব্যবহারের কোনো পূর্বপরিকল্পনা ছিলো না। শিক্ষাজীবন থেকেই আমি বিভিন্ন সামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িত। কাজ করতে করতেই দেশে আধুনিক প্রযুক্তির প্রচলন ঘটে। মনে হচ্ছিলো ছোট একটা ভালো কাজ করে যদি প্রচার করা যায়, তাহলে আরও হাজারটা ভালো কাজ হবে। এক পর্যায়ে ধীরে ধীরে ফেসবুক লাইভে কথা বলার সাহস পাই। ভালো সাড়াও আসে সব জায়গা থেকে।