নাটকীয় ম্যাচে জিতল লক্ষ্মীপুরের নোমানের ইস্ট জোন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জয় দিয়ে ওয়ালটন ইয়ুথ ক্রিকেটের ওয়ানডে টুর্নামেন্টের যাত্রা শুরু করল নোমানের ইস্ট জোন। আর চারদিনের টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন সেন্ট্রাল জোন পেল পরাজয়ের স্বাদ। রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে সাজ্জাদের সেঞ্চুরিতে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ২২৭ রান তোলে সেন্ট্রাল জোন। জবাবে শেষ উইকেটে জয় নিশ্চিত হয় ইস্ট জোনের।

সেন্ট্রাল জোনের ইনিংসে ছিল একক আধিপত্য। ওপেনার সাজ্জাদ ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যান লড়াই করতে পারেননি। ১৪৬ বলে ১১৩ রান করেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন মাকসুদুর রহমান। এছাড়া সাজ্জাদ শাহরিয়ার ১৭ ও সাজ্জাদ হোসেন মিরাজের ব্যাট থেকে আসে ১৩ রান। এছাড়া দলের ছয় ব্যাটসম্যান পৌঁছতে পারেননি দুই অঙ্কের ঘরে। অভিশেষ দাস ৩৪ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ২টি উইকেট নেন নোমান চৌধুরী সাগর।

লক্ষ্য তাড়ায় ৬ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারায় ইষ্ট জোন। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হলেও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ছিলেন দায়িত্বশীল। বিশেষ করে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হওয়া ফজলে রাব্বী ছিলেন দুর্দান্ত। ৬৬ রান করেন এ ব্যাটসম্যান। তবে ৪৭তম ওভারের প্রথম বলে সেট ব্যাটসম্যান আবু বকর ৩১ রান নিয়ে আউট হলে আবারো বিপদে পড়ে ইস্ট জোন। কিন্তু সবাইকে চমকে দিয়ে নোমান চৌধুরী সাগর (৪) ও আবু বকর জুনিয়র (২) জয় নিয়ে ফিরলেন মাঠ থেকে। ম্যাচটিতে ইস্ট জোনের মোহাম্মদ ফয়সাল ৪৯, আলভী হক ২৯ রান করেন। বোলিং আশিকুুর রহমান নাবিদ পেয়েছেন ২ উইকেট।

এর আগে সকালে রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন বিসিবির পরিচালক ও গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন। এসময় পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটন গ্রুপের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম, ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ফিরোজ আলম এবং অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর মিলটন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। যুবা ক্রিকেটারদের অনুপ্রাণিত করতে মাঠে ছিলেন রাজশাহী বিভাগের দুই ক্রিকেটার ফরহাদ রেজা ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

উল্লেখ্য, নোমান চৌধুরী সাগর লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বাঙ্গাখাঁ গ্রামের আবদুল কাইয়ুমের ছেলে। সে ডানহাতি ফাস্ট বোলার। বর্তমানে সে খেলাধুলার পাশাপাশি বিকেএসপিতে দ্বাদশ শ্রেনীতে পড়ালেখা করছে। এরআগে লক্ষ্মীপুর জেলা অনুর্ধ্ব- ১৪,১৬ ও ১৮ দলের হয়ে খেলেছেন নোমান।

শীর্ষ সংবাদ/এফএইচ