নেতিবাচক রাজনীতির জন্য বিএনপি দুর্বল হলে কারো কিছুই করার নেই : ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি তার নেতিবাচক রাজনীতির জন্য দুর্বল হলে কারো কিছুই করার নেই।

তিনি বলেন, ‘ বিরোধীদল শক্তিশালী হলে গণতন্ত্রের জন্য ভাল। বিএনপি দূর্বল হোক, সেটা আমরা চাই না। কিন্তু তারা নিজেদের নেতিবাচক রাজনীতির জন্য দুর্বল হলে আমাদের কিছু করার নেই।’ সেতুমন্ত্রী কাদের আরো বলেন, তবে বিভিন্ন ভাবে আমরা জানতে পেরেছি, বিএনপির অনেক নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেবে।

ওবায়দুল কাদের আজ রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলের প্রার্থীদের নাম ঘোষনার আগে এ কথা বলেন। দল থেকে মনোনয়ন পাওয়া ৮৭ প্রার্থীর নাম ঘোষণাও করেন তিনি। এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি ও দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আওয়ামী লীগ এ দু’টি পদে মনোনয়ন দেবে না। সার্বিক শৃঙ্খলা ও দলের সাংগঠনিক অবস্থা বিচার বিশ্লেষণ করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয়ার আগেই হেরে যায়। তারা নালিশের রাজনীতি শুরু করেছে। তারা নেতিবাচক রাজনীতি আকড়ে ধরে আছে। তারা পুরনো মরচে ধরা নেতিবাচক রাজনীতির হাতিয়ার ব্যবহার করছে।

সুত্র : বাসস