লক্ষ্মীপুরে রসের কলসিতে জ্যান্ত কই মাছ : দুই বিক্রেতাকে গণপিটুনি

নিজস্ব প্রতিবেদক :  

শীতকালে খেজুরের রস খেতে সবাই ভালোবাসে। সে রসের কলসিতে যদি জ্যান্ত কই মাছ পাওয়া যায় তাহলে চোখ ছানাবড়া হওয়ার কথা। রস কিনতে এসে জ্যান্ত কই মাছ পেয়ে ক্রেতার হাতে দুই বিক্রেতা গণপিটুনির শিকার হয়েছেন।

শনিবার ভোরে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর শহরের ট্রাফিক মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

গণপিটুনির স্বীকার দুই বিক্রেতা হলেন উপজেলার ১০নং রায়পুর ইউনিয়নের শায়েস্তানগর গ্রামের অজি উল্যার ছেলে ইব্রাহিম ও একই এলাকার মোহাম্মদ উল্যার ছেলে মো. আজিম।

পৌরসভার কাঞ্চনপুর গ্রামের শহিদ পাটওয়ারী জানান, বাড়িতে মেহমান আসায় খেজুরের রস কিনতে থানার সামনে ট্রাফিক মোড়ে যাই। সেখানে দুই রস বিক্রেতা চার কলস রস নিয়ে ক্রেতার জন্য অপেক্ষা করছেন। এ সময় বিক্রেতার কলস থেকে আমিসহ চারজন ক্রেতা বাড়ি থেকে নেয়া নিজেদের কলসিতে রস ঢালতে গেলে জীবন্ত কই মাছ লাফ দিয়ে মাটিতে পড়ে। এতে উত্তেজিত হয়ে কয়েকজন ক্রেতা ওই দুই বিক্রেতাকে গণপিটুনি দিয়ে কলস ভেঙে ফেলে। এ সময় গণপিটুনির শিকার হয়ে তারা পালিয়ে যায়।

দেনায়েতপুর গ্রামের আবু তাহের নামে এক ব্যবসায়ী জানান, কয়েকজন অসাধু রস বিক্রেতা কলসের মধ্যে পানির সঙ্গে গরুর খাবার (খড়) মিশিয়ে রাতে ভিজিয়ে রাখে। এতে ওই পানি সকালে হালকা হলুদ রং ধারন করে। তখন তা রসের মতো দেখায়। তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কঠিন শাস্তি দিতে হবে।