লক্ষ্মীপুরের নৌ-বন্দর নির্মাণ কাজে অগ্রগতি নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের দেড় বছর পার হলেও এখনো অগ্রগতি নেই লক্ষ্মীপুরের মজু চৌধুরীর হাটের নৌ-বন্দর নির্মাণে। জেলা প্রশাসন ও বিআইডব্লিউটিএ’র যৌথ সার্ভে কমিটির সমন্বয়হীনতায় প্রকল্পের কাজে বিলম্ব হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে জেলার যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের স্বার্থে দ্রতই নৌ-বন্দর নির্মাণ কাজ শুরুর দাবি স্থানীয়দের।

লক্ষ্মীপুর শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে মজুচৌধুরীর হাট। এ লঞ্চঘাট দিয়ে প্রতিদিন বরিশাল, চট্রগ্রাম, সিলেট ও খুলনা বিভাগের ২১ জেলার হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। এটি গুরুত্বপূর্ণ নৌ রুট হওয়ায় ২০১৭ সালের মার্চে নৌ-বন্দর নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

এরপর পেরিয়েছে দেড়বছর। অভিযোগ রয়েছে, প্রশাসন ও চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএ’র যৌথ সার্ভে কমিটির মধ্যে সমন্বয়হীনতায় অগ্রগতি হয়নি কাজের। প্রকল্পের বর্তমান অবস্থায় উদ্বেগ জানিয়েছে ব্যবসায়ী ও বন্দর ব্যবহারকারীরা।

বন্দর নির্মাণ প্রকল্পটি নৌ-মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন এবং এরইমধ্যে ভূমি অধিগ্রহনের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানালেন জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল।

এ অঞ্চলের যাতায়াত ও ব্যবসা বাণিজ্য প্রসারে মজুচৌধুরীর হাট লঞ্চঘাটটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। তাই দ্রুতই বন্দর নির্মাণের দাবি স্থানীয়দের।