ফিলিপাইনে ঝড় ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২৬

ফিলিপাইনে বড়দিনের পর প্রলয়ঙ্করী ঝড় ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২৬ জনে দাঁড়িয়েছে। রোববার দেশটির কর্তৃপক্ষ একথা জানিয়েছে।
মূলত প্রবল বর্ষণের ফলেই ভূমিধস হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

ঝড়টি ২৯ ডিসেম্বর ফিলিপাইনের মধ্য ও পূর্বাঞ্চলীয় দ্বীপগুলোতে আঘাত হানে। ঝড়ের প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাত, বন্যা ও ভূমিধসের সৃষ্টি হয়।
আঞ্চলিক দুর্যোগ কর্মকর্তারা বলেন, ম্যানিলার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় পার্বত্য বিকোল অঞ্চলে শতাধিক লোক প্রাণ হারিয়েছে।

বেসামরিক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা বলেন, সরকারের ঝড় সতর্কীকরণ ব্যবস্থায় ঝড়টি যথেষ্ট শক্তিশালী হিসেবে ধরা পড়েনি বিধায় একে টাইফুনের মাত্রা দেয়া হয়নি। ফলে আগে থেকে সতর্কতাবার্তা না থাকায় অনেকেই প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি।

কর্মকর্তারা আরো বলেন, এছাড়া বড়দিনের ছুটিতে অনেক বাসিন্দাই বাড়ি ছেড়ে যেতে চাননি।

জাতীয় দুর্যোগ সংস্থার মুখপাত্র এডগার পোসাদাস বলেন, ‘শুধু দুই দিনেই বিকোল অঞ্চলে এক মাসের বেশি পরিমান বৃষ্টিপাত হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান চলছে। তবে পুরু কাদার স্তর ও ভেজা মাটির জন্য কাজটি কঠিন হচ্ছে।’

পোসাদাস বলেন, ২৬ জন নিখোঁজ রয়েছেন। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। ঝড়ের কারণে ১ লাখ ৫২ হাজারের বেশি লোক গৃহহীন হয়ে পড়েছে এবং ৭৫ জন আহত হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট রডরিগো দুতার্তে শুক্রবার ঝড় উপদ্রুত এলাকাগুলো পরিদর্শন করেছেন।
তিনি স্কুলগুলোকে আশ্রয় শিবির বানাতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

সুত্র  : বাসস