নিজের বিয়েতে বাজি পুড়িয়ে ট্রোলড প্রিয়ঙ্কা

Print Friendly, PDF & Email

এবার নিজের বিয়েতে বাজি পুড়িয়ে ট্রোলড হলেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া। সোশ্যাল সাইটে নেটিজেনরা প্রশ্ন তোলেন, তার দিওয়ালির ক্যাম্পেনের কী হল? গত দিওয়ালিতে প্রিয়ঙ্কা ‘আতসবাজি নয়’ এই প্রচার চালন।

ওই সময় তিনি এক ভিডিও বার্তায় দেশবাসীর কাছে আবেদন করেছিলেন, ‘আতসবাজি মুক্ত হোক এই দিওয়ালি। এটা আলোর উৎসব, আনন্দের উৎসব।’

পাঁচ বছর বয়স থেকেই তার শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে। চিকিৎসাও হয়েছে অনেক। এই বিষয়ে বলতে গিয়ে দিওয়ালির আগে ওই আবেদন রেখেছিলেন প্রিয়ঙ্কা। অথচ সেই প্রিয়ঙ্কার বিয়েতেই দেদারছে আতসবাজি পুড়ানো হলো। শনিবার প্রথম বিয়ের পর জোধপুরের আকাশ ভরেছিল আতসবাজিতে।

জনসাধারণকে যিনি আতসবাজি নিয়ে সচেতন করার কাজে নেমেছিলেন, সেই প্রিয়ঙ্কাই নিজের বিয়েতে উল্টো পথে হাঁটলেন কেন? ধুমধাম করে আতসবাজি পুড়িয়ে বিয়ে করলেন কেন? সোশ্যাল সাইটে এই প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা। অনেকে বলেন, প্রচার পেতেই তারকারা এমন মন্তব্য করে থাকেন, কিন্তু নিজেদের অনুষ্ঠানে সে সব ভুলে মারেন।’

প্রশ্ন উঠেছে জোধপুরে বাজি পোড়ানোর সময় প্রিয়ঙ্কার সারমেয় প্রেম, পরিবেশ ও দূষণ জ্ঞান কোথায় গেল? দিল্লিতে মুখে মাস্ক পরে ঘুরছেন আর বাজি পুড়িয়ে জোধপুরকে দূষিত করছেন! এমন কটাক্ষও নববধূকে শুনতে হয়েছে সোশ্যাল সাইটে। যদিও এই ট্রোলিংয়ের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি প্রিয়ঙ্কা।