খাশোগি হত্যায় সরাসরি সৌদিকে দায়ী করলেন এরদোয়ান

Print Friendly, PDF & Email

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় প্রথমবারের মতো সরাসরি সৌদি আরবকে দায়ী করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওয়াশিংটন পোস্টে লেখা এক কলামে এরদোয়ান বলেন, ‘আমরা এটা ভালোভাবেই জেনে গেছি খাশোগি হত্যার নির্দেশ সৌদি রাজতন্ত্রের উপর মহল থেকে এসেছে। তবে আমি বিশ্বাস করি বাদশাহ সালমানের এ হত্যায় কোনো সম্পৃক্ততা নেই। আমরা জানি খাশোগি হত্যার সঙ্গে জড়িত ১৮ ব্যক্তিকে সৌদিতে আটক করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাছাড়া আমরা এটাও জানি যে, ওই ১৮ জন নির্দেশ অনুযায়ী তুরস্কে এসেছে এবং খাশোগিকে হত্যা করে চলেও গিয়েছে। অবশেষে আমরা জানতে পারলাম খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ এসেছে সৌদি সরকারের উপর মহল থেকে।’ খাশোগি হত্যার নির্দেশদাতা সেই মাস্টার মাইন্ডের নাম প্রকাশ করার আহ্বান জানিয়েছেন এরদোয়ান।

এদিকে এরদোয়ানের উপদেষ্টা ইয়াসিন আক্তে বলেছেন, খাশোগিকে হত্যার পর তার টুকরো টুকরো মরদেহ এসিড দিয়ে পোড়ানো হয়। হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দিতে ও মরদেহ নিশ্চিহ্ন করতেই সৌদি কিলিং স্কোয়াড তার টুকরো টুকরো মরদেহ এসিড দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে বলে দাবি করেছেন তিনি।

প্রাথমকিভাবে এ হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছিল সৌদি আরব। তবে কূটনৈতিক সম্পর্ক বিবেচনায় ও পশ্চিমা বিশ্বের চাপে শেষ পর্যন্ত সৌদি আরব স্বীকার করতে বাধ্য হয় খাশোগিকে তারাই হত্যা করেছে। তবে খাশোগির মরদেহের কোনো হদিস এখনও পাওয়া যায়নি।