দেশের হয়ে শেষ ওয়ানডেটা খেলে ফেললেন গেইল

Print Friendly, PDF & Email

না, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটকে বিদায় বলেননি। তবে দেশের হয়ে শেষ ওয়ানডেটা খেলে ফেলেছেন ক্রিস গেইল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেললেও গেইলের দেশ তো আসলে জ্যামাইকা। কেনিংস্টন ওভালে রিজিওনাল সুপার ফিফটি ক্ল্যাশে বার্বাডোজের বিপক্ষে জ্যামাইকার হয়ে শেষ ওয়ানডেটা খেলে ফেলেছেন মারকুটে এই ওপেনার। বিদায় বলেছেন লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটকে। তবে আরেকটি চারদিনের ম্যাচ তিনি খেলবেন জ্যামাইকার হয়ে, এরপর পুরোপুরি বিদায় বলবেন।

দেশের হয়ে ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডেতে ম্যাচ জেতানো এক সেঞ্চুরিই করেছেন গেইল। বিদায়বেলায় বললেন, ‘জ্যামাইকার হয়ে শেষ ৫০ ওভারের ম্যাচে সেঞ্চুরি করাটা আমার জন্য ভীষণ আনন্দের। এমন কিছুই আমি মনের মধ্যে পুষে রেখেছিলাম। দলকে জয় এনে দিতে পারা আমার জন্য আরও স্পেশাল। দেশের প্রতিনিধিত্ব করা আমার জন্য আনন্দের ছিল, নেতৃত্ব দেয়াও। ৩৯ বছর বয়সে দাঁড়িয়েও জ্যামাইকার হয়ে শেষ ম্যাচে সেঞ্চুরি করতে পেরে আমি সবার কাছে কৃতজ্ঞ।’

GAYLE

শেষের আগে আরেকটি ইচ্ছে রয়ে গেছে গেইলের। জ্যামাইকার হয়ে একটি চারদিনের ম্যাচ খেলতে চান। ক্যারিবীয় ওপেনার বলেন, ‘যদি সম্ভব হয়, আমি সাবিনা পার্কে একটি চারদিনের ম্যাচ খেলব। যদি সম্ভব হয়, অবশ্যই খেলব। আমি জানি না, সেটা কখন হবে। আমি সূচির দিকে তাকিয়ে আছি, নিজে প্রস্তুত আছি।’

জ্যামাইকার হয়ে শেষ ওয়ানডে খেলতে নামা গেইলকে ‘গার্ড অব অনার’ দিয়েছে দুই দলই। তার সম্মানার্থে অধিনায়ক নিকিতা মিলারের বদলে নেতৃত্বের দায়িত্ব দেয়া হয় এই ম্যাচে। অধিনায়ক হিসেবে মাঠে নেমে ১১৪ বলে ১০ চার আর ৮টি বিশাল ছক্কায় ১২২ রান করেন গেইল। তার এমন সেঞ্চুরিতে জিতেছে দলও।