আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ানের রিট, ২৮ চালকের চাকরী স্থায়ীকরণের নির্দেশ

Print Friendly, PDF & Email
ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক :

দেশের বিভিন্ন ইউএনও অফিসে মাস্টার রোলে (দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে) কর্মরত চালকদের চাকরি স্থায়ীকরণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। দৈনিক মজুরিতে কর্মরত চালক সোহেলসহ ২৮ জনের পক্ষে রিট আবেদন করেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী আবদুস সাত্তার পালোয়ান।

বুধবার (৩ অক্টোবর) রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী বিএম ইলিয়াছ কচি ও আইনজীবী আবদুস সাত্তার পালোয়ান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আশিক রুবায়েত।

পরে রিটকারী আইনজীবী আবদুস সাত্তার পালোয়ান বলেন, সারাদেশের বিভিন্ন ইউএনও অফিসে দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কর্মরত ২৮ চালকের চাকরি স্থায়ী করে নিয়োগ দিতে পরিবহন পুলকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

আইনজীবী জানান, দেশের বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী (ইউএনও) অফিসে মাস্টার রোলে নিয়োগ পাওয়া চালকদের চাকরি না দিয়ে পরিবহন পুল ২০১৪ সাল থেকে সুকৌশলে চালক নিয়োগের চেষ্টা করে আসছিল। যদিও আপিল বিভাগের সুপারিশ রয়েছে মাস্টার রোলে কর্মরত চালক বা কর্মচারীরা সংশ্লিষ্ট অফিসে নিয়োগের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে।

সেই রিটের শুনানি শেষে ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর পরিবহন পুলের ২৮০ চালক নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে মাস্টার রোল ও দৈনিক ভিত্তিতে কর্মরত চালকদের কেন নিয়োগ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। রুল নিষ্পত্তি করে এ রায় ঘোষণা করেন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, পরিবহন পুলের কমিশনার, বিভিন্ন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ৯ জনকে ওই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। রুলের শুনানি শেষে ২৮ চালকের চাকরি স্থায়ী করণের নির্দেশ দিলেন।

আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান লক্ষ্মীপুরের কৃতি সন্তান। এছাড়াও লক্ষ্মীপুরের প্রায় ১৮ লাখ মানুষের প্রাণের দাবী ঢাকা টু লক্ষ্মীপুর লঞ্চ সার্ভিস চালু করার দাবীতে গঠিত `ঢাকা ‍টু লক্ষ্মীপুর লঞ্চ চাই পরিষদ’ এর আহ্বায়ক তিনি।

 

শীর্ষ সংবাদ/রাকিব হোসেন আপ্র