প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাস করেন না

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ঢাকা মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাস্টের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার বলেছেন, আজীবন যেই অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও চেতনার মধ্যদিয়ে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী সোনার বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, আজ তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা বাস্তবায়ন করছেন। তিনি সাম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাস করেন না।

বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লক্ষ্মীপুরে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন। অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাস্টের উদ্যোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার আরো বলেন, একটি বার হলেও ভেবে দেখুন, যে দলটি নেতৃত্ব দিয়ে এদেশটি প্রতিষ্ঠা করেছে, সেই দলের নেতা আজ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আসুন, আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে একটি আদর্শিক সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে যার যার অবস্থান থেকে কাজ করি।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর এদেশের স্বাধীনতা সূর্য ম্লান হয়ে যায়। আমরা দেখি, তারপর যারা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় গিয়েছিল তারা এদেশটিকে পিছনে টেনে ধরে ছিল। তারাই সাম্প্রদায়িক রাজনীতির বিষ-বাষ্প এদেশে ছড়িয়ে দিয়েছিল। সাম্প্রদায়িক রাজনীতির মাধ্যমে তারা ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে এদেশের আপামর জনসাধারণে অধিকার পদদলিত করেছিল। এরপর ১৯৯৬ সালে নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় গিয়ে অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে কাজ শুরু করে। কিন্তু ২০০১ সালে সেটি আবারো বাধাগ্রস্ত হয়। বর্তমানে আপনারা দেখছেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আসুন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে এ ধারা অব্যাহত রাখি।

মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট রতন লাল ভৌমিক, সহ-সভাপতি বিজন বর্ধন, সাধারণ সম্পাদক স্বপন দেবনাথ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি শংকর মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক স্বপন নাথ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বিজন বিহারী ঘোষ, বাংলাদেশ ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি শিমুল সাহা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট প্রহল্লাদ সাহা রবি।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সামছুদ্দিন সাজু, হাজিরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল আলম বাবুল, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ চন্দ্রগঞ্জ থানা শাখার আহ্বায়ক গৌতম মজুমদার, পূজা উদযাপন পরিষদ চন্দ্রগঞ্জ থানা শাখার সভাপতি বাদল মজুমদার বাপ্পী, সাধারণ সম্পাদক জয়দেব নাথ প্রমুখ।

অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি ও অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাস্টের চেয়ারম্যান।

শীর্ষ সংবাদ/রাকিব