‘বিএমএ’র কাজ স্বাস্থ্যসেবা মনিটরিং করা, ডাক্তারকে বাঁচানো নয়’

Print Friendly, PDF & Email

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক চট্টগ্রামের বিএমএ (বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন) নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন, বিএমএ’র কাজ ডাক্তারকে বাঁচানো নয়। ডাক্তারদের ওপর কোনো গণ্ডগোল হলে তখন আপনারা ছুটে আসেন। এটি কিন্তু আপনাদের কাজ নয়। আপনাদের কাজ হলো স্বাস্থ্যসেবা দেখা, মনিটরিং করা। আপনাদের দায়িত্ব ডাক্তাররা সার্ভিস ঠিক মতো দিচ্ছে কিনা তা খেয়াল রাখা। হাসপাতালের সার্ভিস যাতে ভালো হয়, সেটিও আপনাদের দেখার বিষয়। আপনাদের কাছ থেকে একটি বিষয় পাইনি তা হলো- আপনাদের পরামর্শ।

আজ বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক কোলোরেকটাল সার্জারি কনফারেন্স ও লাইভ ওয়ার্কশপ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, চমেক অধ্যক্ষ সেলিম জাহাঙ্গীর, চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন, বিএমএ চট্টগ্রামের সভাপতি মুজিবুল হক খান, সাধারণ সম্পাদক ফয়সল ইকবাল, সার্জারি বিভাগের প্রধান মো. নূর হোসাইন ভূঁইয়া প্রমুখ। এর আগে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক চমেক হাসপাতালের কার্ডিওয়ালজি ওয়ার্ড, নিউনেটোলজি ওয়ার্ড ও রেডিওথেরাপি ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন।

জাহিদ মালেক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্য বিভাগ অনেক দূর এগিয়েছে। দেশের মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে। এমনকি প্রাইমারি চিকিৎসার ক্ষেত্রে জাপানের চেয়ে আমরা বেশি পিছিয়ে নেই। আমাদের প্রয়োজন সচেতনতা বাড়ানো। আমাদের লোকবল সংকট আছে। পাশাপাশি ডাক্তার ও স্পেশালিস্টও কম আছে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যে ডাক্তার কাজ করে না, তার দোষ হয় না। ১০০টি কাজ করলে একটি ভুল হতেও পারে। ডাক্তারদের সেটি স্বীকার করে নিতে হবে। সামনে যাতে ভুল না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বলেন, ভারত, পাকিস্তানের তুলনায় এমডিজিতে আমরা এগিয়ে গেছি।  দেশের ডাক্তাররাও ভালো কাজ করছে। সব মিলিয়ে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন হয়েছে।