চাকরি খুঁজছেন? আপনাকে বলছি…

Print Friendly, PDF & Email

Image may contain: 1 person

শাহাদাত হোসেন সাহাফ :

চাকরি খুঁজছেন? আপনাকে বলছি………

কথাগুলো বিশ্বাসীদের জন্য। যারা আল্লাহ এবং তার রাসূলে বিশ্বাস করে। যারা পরকাল ও তাক্বদীরে বিশ্বাস রাখে এবং যারা ঘোষণা করে, আমাদের রবের পক্ষ থেকেই আমাদের রিযিক আসে।

আমাদের রব পরম করুণাময়, অসীম দয়ালু। তার সৃষ্ট হাজার কোটির প্রাণির কয়েকজন মাত্র আমি আর আপনি। এই হাজার কোটি প্রাণিকে উনি (আল্লাহ) প্রতিনিয়ত রিযিক দিয়ে যাচ্ছেন। যদি চোখ বন্ধ করে একটু চিন্তা করি তাহলে বুঝতে পারব কত ক্ষুদ্র আমি, হাজার কোটি প্রাণির একজন। তার মানে, আমাদের রব ইচ্ছা করলে আমাকেও রিযিক দিতে পারেন, উত্তম রিযিক।

আমাদের চাকরির বাজারের যে অবস্থা তাতে আমাদের চয়েজ (পছন্দ) থাকা উচিত নয় যে এটা করব, এটা করব না। পচন্দ করা অনেকের কাছে হাস্যকরও বটে। ভালো কিছু (হ্যান্ডসাম স্যালারি, হাই সোশ্যাল স্ট্যাটাস, বিয়ের বাজারে ভ্যালুয়েবল) হলেই নিয়ে নিতে হবে। যেমন ধরুন, ব্যাংক জব। কিন্তু আমরা বিশ্বাসীরা আমাদের রবের কাছে ফিরে যাওয়াকে ভয় করি। আমরাতো বিশ্বাস করি সেই দিনের যেদিন বিন্দু মাত্র ভালো ও খারাপ কাজের হিসাব করা হবে। আমরা কিভাবে হারাম রিযিক নিয়ে পুরো জীবনটা পার করে দিতে পারি!!! এই হারাম অর্থ দিয়েই হৃষ্টপুষ্ট হবে আমার সন্তানের শরীর। ভাবতে পারি!!!

আমরাতো তাদের দলেও না যারা এই হারাম কে হালাল বানানোর জন্য যুক্তি খুঁজে; যারা বলে, জীবন বাঁচানোর জন্য সব যায়েজ (হালাল)। কিন্তু এই কথার কি ভিত্তি হতে পারে যে, এক ব্যাংক জব বা হারাম পণ্যের ব্যবসা করে ঐসব কোম্পানিতে চাকরি না করলে আমার আর কোন উপায় নাই মরে যেতে হবে!!!

কিন্তু জানেন! আমার রব, আমাকে আপনাকে উদ্দেশ্য করেই সূরা ত্বালাক্বের(৬৫ নং) ২ (শেষ অংশ) ও ৩ নং আয়াতে এভাবেই বলছেন, আমরা যদি তাকে (আল্লাহ) ভয় করি, তিনি আমাদের জন্য পথ বের করে দিবেন। আমাদের এমন স্থান হতে রিযিক দিবেন যা আমরা কল্পনাও করতে পারবনা। (তিনি আরো নিশ্চয়তা দিচ্ছেন) আমরা যদি তার উপর ভরসা করি, তাহলে তার সাহায্যই আমদের জন্য যথেষ্ট। উনি আমাদের কাজ পূর্ণ করবেন। আরো বলছেন, তিনি সব কিছুর জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ স্থির করে রেখেছেন।

وَمَن يَتَّقِ اللَّهَ يَجْعَل لَّهُ مَخْرَجً وَيَرْزُقْهُ مِنْ حَيْثُ لَا يَحْتَسِبُ وَمَن يَتَوَكَّلْ عَلَى اللَّهِ فَهُوَ حَسْبُهُ إِنَّ اللَّهَ بَالِغُ أَمْرِهِ قَدْ جَعَلَ اللَّهُ لِكُلِّ شَيْءٍ قَدْرًاا

”আর যে আল্লাহকে ভয় করে, আল্লাহ তার জন্য নিষ্কৃতির পথ করে দিবেন। এবং তাকে তার ধারনাতীত জায়গা থেকে রিযিক দিবেন। যে ব্যক্তি আল্লাহর উপর ভরসা করে, তার জন্যে তিনিই যথেষ্ট। আল্লাহ তার কাজ পূর্ণ করবেন। আল্লাহ সবকিছুর জন্য একটি পরিমাণ স্থির করে রেখেছেন।” [৬৫: ২(শেষ অংশ)-৩]

তাহলে ভাই, যখন আমাদের রব আমাদের রিযিকের নিশ্চয়তা দিচ্ছেন, যিনি এই সমস্ত সৃষ্টির সৃষ্টিকর্তা, যার কাছে কোন কিছুই অসম্ভব না, তাহলে আমরা কেন এত হন্য হয়ে হারাম রিযিকের পিছনে ছুটছি!!!
আসুন না, কঠোর পরিশ্রম আর উনার কাছে সাহায্য চাওয়ার (ধৈর্য্য এবং সালাতের মাধ্যমে) মাধ্যমেই রিযিক তালাশ করি, উত্তম রিযিক।

কাউকে আঘাত করার জন্য কথাগুলো নয়। আপনাকে ভালবাসি, চাইনা আপনি ৭টি মহাপাপের একটি করে বসেন, চাইনা আপনার এত পরিশ্রমের টাকাগুলো হারাম হয়ে যাক। আমরা একসাথে জান্নাতে থাকতে চাই বলেই কথাগুলো।

লেখকের ফেসবুক থেকে সংগৃহীত