নিবন্ধন না পেলে আদালতে যাবে গণসংহতি আন্দোলন

Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক: নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) আদালত পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়েছে গণসংহতি আন্দোলন। দলটির দাবি- নিবন্ধন নেয়ার জন্য সব শর্ত পূরণ করে ইসিতে আবেদন করা হলেও তারা নিবন্ধন পাচ্ছেন না বলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। নিবন্ধন না পেলে আদালতের শরণাপন্ন হবেন বলে জানিয়েছেন দলটি প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি।

আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে দলের প্রধান সমন্বয়ক ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী সমন্বয়কারী স্বাক্ষরিত একটি চিঠি সোমবার দেয়া হয়। চিঠি দেয়ার পর জোনায়েদ সাকি সাংবাদিকদের বলেন, দুটি দল ছাড়া গণসংহতি আন্দোলনসহ বাকি দলগুলোকে বাতিল করা হয়েছে বলে আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছি। তাই এ বিষয়ে আজকে আমরা কমিশনকে চিঠি দিচ্ছি। প্রয়োজনে পরবর্তীতে স্মারকলিপি দেয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সাকি বলেন, আমরা সব শর্ত পূরণ করে আবেদন করেছি। নির্বাচন কমিশনের যে তিনটি শর্ত আছে তার তিন নম্বর শর্ত পূরণ করে আমরা আবেদন করেছি। যেখানে মাঠপর্যায়ে নির্দিষ্ট পরিমাণ দলীয় কার্যালয় থাকার কথা। আমাদের সে পরিমাণ দলীয় কার্যালয় রয়েছে। আমাদের জানা মতে, মাঠপর্যায়ে কোনো পরিদর্শন করেনি কমিশন। তাহলে কিসের ভিত্তিতে আমাদের আবেদন বাতিল হয় সেটি বোধগম্য নয়। তিনি বলেন, নিবন্ধন না পেলে এটি পাওয়ার জন্য যতগুলো ধাপ পূরণ করতে হয়, আমরা তা করব। প্রয়োজন হলে আমরা অবশ্যই আদালতে যাব।

প্রসঙ্গত, এর আগে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অংশ নিয়ে জামানত হারান জোনায়েদ সাকি। এছাড়া দলের নিবন্ধনের শর্তও পূরণ করতে পারেনি গণসংহতি আন্দোলন। এ বিষয়ে ইসির একাধিক কর্মকর্তা জাগো নিউজকে বলেন, দলটি কোনো শর্তই পূরণ করতে পারেনি। এক ব্যক্তি নির্ভর এই দলকে কোনোভাবেই নিবন্ধন দেবে না ইসি।