পদ্মা সেতুতে অবশেষে রেলের চুক্তি হচ্ছে

Print Friendly, PDF & Email

পদ্মা সেতুর ওপর রেল সংযোগ প্রকল্পের ঋণ চুক্তি আগামী ২৮ এপ্রিল সই হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক।আজ রোববার আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব গভর্নেন্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিআইজিএম) ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো নির্মাণ কাজ শুরুর ২ বছরেরও বেশি সময়ের পর এ সেতুতে রেল সংযোগের চুক্তি হতে যাচ্ছে। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতু নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। মূল সেতু নির্মাণে ব্যয় হবে ১২ হাজার ১৩৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।রেলমন্ত্রী জানান, চীনের বেইজিংয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষর হবে। সেদেশের এক্সিম ব্যাংক এই প্রকল্পে অর্থায়ন করছে।

তিনি বলেন, অনেক প্রতীক্ষার পর এই ঋণ চুক্তি হতে যাচ্ছে। আমাদের সব কার্যক্রম শেষ হয়েছে। চুক্তি হলেই কাজ শুরু হবে।রেলমন্ত্রী এ সময় রেলওয়েতে চলমান আরও কয়েকটি প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে বলেন, সারাদেশকে রেল নেটওয়ার্কের আওতায় আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কক্সবাজারে নতুন রেল লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। বরিশালের পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন নির্মিত হবে। বিদ্যমান রেললাইনকে পর্যায়ক্রমে ডাবল লাইন করা হবে। আরও অনেক কোচ এবং ইঞ্জিন আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।সংশ্লিষ্ট সেমিনার সংক্রান্ত বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, নীতির বিশ্লেষণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গভীর জ্ঞান ছাড়া সঠিক উন্নয়ন সম্ভব না। সঠিক নীতি প্রণয়ন এবং তার বাস্তবায়নের মাধ্যমেই দেশের উন্নয়ন সম্ভব।তিনি বলেন, উন্নয়নশীল দেশের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে সরকারি ও বেসরকারি প্রত্যেককে এক সাথে কাজ করতে হবে। মেধা,দক্ষতা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে নিজের অবস্থান তুলে ধরতে হবে।এ বি মির্জা আজিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোঃ রাজি হাসান, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোয়াজ্জেম হোসেন।কোর্স সমাপ্তকারী সরকারি, বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার ৩১ জন প্রতিনিধি এ সময় উপস্থিত ছিলেন।