বোকা বিড়াল আর চালাক শেয়াল

Print Friendly, PDF & Email

একদিন বনের মাঝে বিড়ালের সঙ্গে দেখা হয়ে গেল পণ্ডিত শেয়ালের। গল্পের এক পর্যায়ে শিয়াল বলল যত বড় বিপদই আসুক, আমি পরোয়া করি না। কারণ আমার অনেক কায়দা জানা আছে। যে কোনো ধরনের সমস্যা মোকাবেলা করতে আমি একাই যথেষ্ট। সে তখন বিড়ালকে জিজ্ঞাসা করল, ধরুন এখনই এখানে একটা আক্রমণের ঘটনা ঘটল। আপনি তখন নিজেকে বাঁচানোর জন্য কোন কোন ব্যবস্থা নেবেন সে নিয়ে কিছু ভেবেছেন কি? বিড়াল বলল আমি কেবল একটা উপায় জানি। সেই উপায়টা যদি কাজ হয় তবেই বাঁচব। আর কোনো উপায় আমার জানা নেই। চালাক শেয়াল বলল আপনার জন্য খারাপ লাগছে। তবুও বলছি, আপনার কোনো কাজে লাগতে পারলে খুবই খুশি হতাম। শিয়ালের কথা শেষ হতে না হতেই তাদের কানে এলো শিকারি কুকুরের আওয়াজ। ভীষণ চিৎকার করতে করতে কুকুরের দল এসে ঝাঁপিয়ে পড়ল তাদের ওপর। বিড়ালের তো জানা আছে একটা মাত্র কায়দা। সে ওটাই খাটাল। সে এক দৌড়ে গাছে উঠে পড়ল। অনেক উঁচুতে মগডালের নিরাপদ আশ্রয়ে বসে দেখতে লাগল শিয়ালের কাণ্ড। হরেক রকমের কায়দা কসরত শুরু করল শিয়াল। কিন্তু হতভাগ্য শেয়াল কিছুতেই কুকুরগুলোর নজরের বাইরে যেতে পারল না। কুকুরগুলো তাকে ঘিরে ধরে টুকরো টুকরো করে ফেলল।

আমরা বলি :কখনও নিজেকে নিয়ে বড়াই কর না। আর তোমার থেকে ছোট কাউকে অবজ্ঞা করো না। বাড়াই বা কাউকে ছোট করার ফল ভালো হয় না।