লক্ষ্মীপুরে এ্যানীর উস্কানিতে রাজপথে আওয়ামীলীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির উস্কানিমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদে লক্ষ্মীপুরের রাজপথে ঘন্টাব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগের অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

বুধবার (১৭ মে) বিকেলে লক্ষ্মীপুর সদর থানা ও পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে এ প্রতিবাদ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলের বিষয়বস্তু ছিলো, লক্ষ্মীপুরসহ দেশব্যাপী বিএনপি নেতাদের উস্কানিমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদে এবং বিএনপির সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি।

সদর থানা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি হুমায়ুন কবির পাটোয়ারীর ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাইফুল হাসান পলাশের নেতৃত্বে শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়। প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে দক্ষিণ তেহমুণী গিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনার মিলিত হয়।

এতে উপস্থিত থেকে রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মতলব, এডভোকেট রাসেল মাহমুদ মান্না, জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদ, মো. জসিম উদ্দিন, সৈয়দ আহমেদ পাটোয়ারী, অ্যাডভোকেট জহির উদ্দিন বাবর, আমজাদ মাস্টার।

যুবলীগ নেতা সৈয়দ নুরুল আমিন বাবর, চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল, রাকিব হোসেন লোটাস, রুপম হাওলাদার, ইবনে জিসাদ আল নাহিয়ান ও ছাত্রলীগ নেতা সেবাব নেওয়াজসহ প্রমুখ।

এসময় বক্তরা বলেন, ‘লক্ষ্মীপুরের মাটি শেখ হাসিনার ঘাঁটি। বিএনপি ক্ষমতা আসার জন্য এখন পাগল হয়ে গেছে। শান্ত লক্ষ্মীপুরকে এ্যানি চৌধুরী উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে অশান্ত করার চেষ্টা করছে। কিন্তু এতে কোনো লাভ হবে না। লক্ষ্মীপুর আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা রাজপথকে নিরাপদ রাখার জন্য সবসময় ঐক্যবদ্ধ।’

প্রসঙ্গগত: শনিবার (১৪ মে) বিকেলে এ্যানির লক্ষ্মীপুর বাসভবন প্রাঙ্গণে জেলা বিএনপির আয়োজিত দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি বক্তব্য রাখেন। সেইখানে এ্যানি আওয়ামী লীগ সরকারের সমালোচনা করে বক্তব্য রাখেন।

একদিন পর রবিবার (১৫মে) সন্ধ্যায় লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ্যানির বক্তব্যের প্রতিবাদে আলোচনা ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।

এ্যানীর উস্কানি মূলক বক্তব্যের প্রতিবাদে সোমবার (১৬ মে) রাজধানী ঢাকায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ ও প্রতিবাদ সভা করেন। এছাড়া এ্যানির জ্বালাময়ী বক্তব্যের পর থেকে ফেসবুক উপ্ত। আওয়ামী লীগ-বিএনপির অনুসারীরা পক্ষ-বিপক্ষ লেখা-লেখিতে মেতে উঠেছে। যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল।

Print Friendly, PDF & Email