নির্মিত হলো একক নাটক “মায়ের চুড়ি’

বাবা হারিয়ে মায়ের আদরেই বড় হয়েছে শান্ত স্বভাবের মুগ্ধ। বাবা না থাকার অভাব চিরকালই মুগ্ধকে ব্যথিত করলেও মায়ের ভালবাসার অভাব ছিল না৷ পড়াশুনা করার পরেও চাকরি না পেয়ে মুগ্ধ’র হতাশা যেন কাটছিলই না৷ অসুস্থ মায়ের চিকিৎসার খরচ বহন করতে মুগ্ধ সিদ্ধান্ত নেয় সে বাইক রাইড শেয়ার করবে। দুই বন্ধুকে সাথে নিয়ে বাইক কিনতে বের হয়ে অনেক হাস্যরসের অভিজ্ঞতা সঞ্চার করে মুগ্ধ। ঢাকার শহরের অপরিচিত অলিগলি ঘুরে বেড়ায় ব্যবহৃত বাইক কেনার জন্য |

অবশেষে একটি পুরােনাে বাইক কেনে মুগ্ধ। বাইক খুঁজতে গিয়ে একটি মেয়ের সাথে পরিচয় হয়েছিল মুগ্ধার। মেয়েটির নাম নেহা, আকষ্মিক ভাবে আবারাে দেখা হয় নেহার সাথে, পরিচয় গড়ায় প্রনয় পর্যন্ত| মুগ্ধ বাইকে ঠিকঠাক ভাবে রাইড শেয়ার করতে না পারলেও নেহাকে নিয়ে ঘুরে বেড়ানাে থেমে থাকে না। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই বেধে যাক এক বিপত্তি, নষ্ট বাইক নিয়ে প্রতিদিন ঘুরতে যাওয়ায় তার পেমিকার সাথে নিয়মিত ঝগড়া হত মুগ্ধর এক পর্যায়ে মুগ্ধর সাথে সম্পর্ক শেষ করে নেহা| এভাবেই এগিয়ে যাওয়া গল্পে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘মায়ের চুড়ি’।

নাটকটি গল্প, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন সায়াদ মামুর কাব্য । নাটকটিতে অভিনয় করেছেন- তামিম খন্দকার, নিশাত নীতি, সাবেরী আলম, আনোয়ার হোসেন, জয়নাল জ্যাক, আরমান আহাম্মেদ উৎসব।

নির্মাতা জানান, নাটকটি শিঘ্রই একটি বেসরকারি চ্যানেলে ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত পাবে।

Print Friendly, PDF & Email