হাসপাতালে মা, মাঠে ছেলের চমক

ঢাকা: চরম বিপর্যয়েও ভেঙে না পড়ে এগিয়ে যাওয়াই উত্তম কাজ। কারণ বিপদ-আপদে হতাশ না হয়ে এগিয়ে যাওয়ার সক্ষমতাই আপনাকে লক্ষ্যে পৌছে দেবে। তেমন ঘটনাই ঘটল লক্ষ্ণৌর পেসার আভেশ খানের ক্ষেত্রে।

মা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে, কিন্তু ছেলে ঠিকই দলের জন্য মাঠে। বিপদে শুধু দলের জন্য খেলেনই নি দল জেতানো পারফরম্যান্সে হয়েছেন ম্যাচসেরাও।

আইপিএলে কাল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে লক্ষ্ণৌর ১২ রানের জয়ে দারুণ বল করে ২৪ রানে ৪ উইকেট নেন আভেশ। সানরাইজার্স জয় থেকে ১৮ বলে ৩৩ রানের দূরত্বে থাকতে ১৮তম ওভারে টানা ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচ ঘুরিয়ে দেন।

ম্যাচ শেষে তার সঙ্গে কথা বলেন লক্ষ্ণৌ সতীর্থ দীপক হুদা। আইপিএলের ওয়েবসাইটে দুই সতীর্থের কথা বলার ভিডিও প্রকাশ করা হয়। দীপকের সঙ্গে কথা বলার সময় এই পেসার জানান, তার মা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে। এখন কিছুটা সুস্থ।

নিজের প্রথম স্পেলে কেইন উইলিয়ামসন ও অভিষেক শর্মাকে তুলে নেন আভেশ। শেষের স্পেলে এলে বিপজ্জনক নিকোলাস পুরান ও আবদুল সামাদকে তুলে নেন।

ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এমন পারফরম্যান্সে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারটা মাকে উৎসর্গ করলেন লক্ষ্ণৌ তারকা, ‘আমি নিজের এই পারফরম্যান্স মাকে উৎসর্গ করছি। তিনি এখন হাসপাতালে। সেখান থেকেই তিনি আমাকে সমর্থন জানিয়েছেন। ভিডিও কলে তার সঙ্গে কথা বলেছি। এখন তিনি ভালোই আছেন। এই পারফরম্যান্স মাকে উৎসর্গ করছি।’

আইপিএলের এ মৌসুমে এখন পর্যন্ত ৩ ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়েছেন আভেশ খান। চলতি টুর্নামেন্টে তিনি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি। ৮ উইকেট নিয়ে শীর্ষে কলকাতা নাইট রাইডার্সের পেসার উমেশ যাদব।

Print Friendly, PDF & Email