আপন শক্তিতেই এগিয়ে চলছে নারীরা

নারী সমাজ বরাবরই অবহেলিত। উচ্চতর ডিগ্রি নিলেও অধিকাংশ নারীর ঠিকানা যেন রান্নাঘর। পুরুষপ্রধান এ সমাজে ঘর থেকে বের হতে হলে বাবা, ভাই কিংবা স্বামীর অনুমতি নিতে হবে, তারপরও আছে কত বাধা-নিষেধ। দীপ্ত পদচারণায় এসব প্রতিবন্ধকতা নারীরা এখন জয় করতে শিখেছেন। এখন নারীরা পড়াশোনা করছেন, চাকরি করছেন- এমনকি স্বাধীন উদ্যোক্তাও হচ্ছেন। দেখা যাচ্ছে, যেসব নারী উদ্যোক্তা হিসেবে কাজ শুরু করছেন, তারা ভালো করছেন।

২০২০ সালে করোনার ভয়াবহ সংক্রমণে অনেকে চাকরি হারিয়েছেন। অনেকের ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে। যার ফলে পরিবারের ওপর নেমে আসে অর্থনৈতিক সংকট। তবে করোনার এ মহামারির মধ্যে নারীকে ঘুরে দাঁড়ানোর সাহস ও প্রত্যয়ও দেখিয়েছেন যশোর জেলার ঝিকরগাছায় ইশরাত জাহান ইনা। তার নিজ উদ্যোগে গ্রুপ টি প্রতিষ্ঠা করেন। এটি মুলত একটি ফেসবুক কেন্দ্রিক গ্রুপ হিসেবে যাত্রা শুরু করে এবং এখন প্রায় ৪৫০০ সদস্য নিয়ে যাত্রা করছে। একজন নারী চাইলে যে পারে তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত এই নারী। ১৫০ জন রেজিস্ট্রার সেলার কে তিনি একাই গাইড করেন এবং তার নির্দেশনা অনুসারে লাখোপতি হয়েছেন অনেকেই।

গত ১৪ জানুয়ারি, ২০২২ তারিখে ঝিকরগাছা নারী উদ্যোক্তা সংগঠন এর প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে গ্রান্ড মিট আপ এর আয়োজন করা হয় । ঝিকরগাছার বরেণ্য নারী ব্যাক্তিত্ত্ব গণ থাকেন প্রধান অতিথি হিসেবে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ঘোষণা করা হয় মোড়ক উন্মোচন এর মাধ্যমে – Jhikorgachha Ladies Entrepreneurs Club ( ঝিকরগাছা নারী উদ্যোক্তা সংগঠন) এই নামে মোড়ক উন্মোচন করা হয়। পূর্ব নাম ছিল ঝিকরগাছা লেডিস ক্লাব। ইশরাত জাহান ইনা (এডমিন) ও সাদিয়া সাজনীম (কো এডমিন) একত্রে নতুন মোড়ক উন্মোচন করেন।

প্রোগ্রামে একে একে সম্মানিত অতিথি মহোদয় কে সম্মাননা স্বরূপ ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। পাশাপাশি গ্রুপের লাখপতি দের, টপ কন্ট্রিবিউটর দের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়, দুপুরের খাবার এবং বিকেলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এর মাধ্যমে মিট আপ এর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email