মা-বাবা ধূমপায়ী হলে সন্তানের ধূমপান করার আশঙ্কা ৪ গুণ : গবেষণা

ব্রিটেন সরকারের করা এক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, কোনো পরিবারে বাবা-মা ধূমপায়ী হলে সেই পরিবারের শিশুদের ধূমপান করার আশঙ্কা চার গুণ বেশি। ধূমপানবিরোধী প্রচারণা চালানো ‘বেটার হেলথ’ এর গবেষণায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর বিবিসির।

বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যে চার দশমিক ৯ শতাংশ তরুণ-তরুণী ধূমপান করে যাদের পরিবারে মা-বাবা ধূমপান করেন। আর যে পরিবারে মা-বাবা ধূমপান করেন না সেই পরিবারের সন্তানদের ধূমপানের হার ১ দশমিক ২ শতাংশ। এই গবেষণার পর গবেষকরা সতর্ক করে বলেছেন, নতুন বছর আসার আগেই মা-বাবার ধূপমান ত্যাগ করা উচিত। এ নিয়ে ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য বিভাগ একটি ফিল্ম তৈরি করেছে এবং মা-বাবার ধূমপানের সঙ্গে সন্তানের ধূমপানের সংযোগ খুঁজছে।

জিপি ডা. নিঘাট আরিফ এবং শিশু মনোবিজ্ঞানী ডা. বেটিনা হোহেন বলেছেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মঙ্গলের জন্য মা-বাবাকে তাদের ধূমপানের অভ্যাসে পরিবর্তন আনতে হবে। যেসব সন্তানের মূল অভিভাবকরা ধূমপান করেন তাদের ধূমপান করার হার ২ শতাংশের বেশি।

ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও জানিয়েছেন, তিনি আশা করেন এই গবেষণা ধূমপায়ী মা-বাবা ও অভিভাবকদের ধূমপান ত্যাগে উৎসাহ দেবে। পার্লামেন্টারি আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট অ্যান্ড মিনিস্টার ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথ ম্যাগি থ্রুপও আশা করেছেন, নতুন বছরের শুরুতে অনেকেই ধূমপান ত্যাগ করবেন বলে আমরা জানি। এই গবেষণা সেই কাজে আরেও উৎসাহ দেবে।

Print Friendly, PDF & Email