লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে এখতিয়ার বহির্ভূত চিঠি ইস্যু করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন। এনিয়ে সাংবাদিকদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত বার্ষিক সাধারণ সভা থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, ইউএনও’র নিয়ম বর্হিভূত চিঠির বিষয়টি জেলাপ্রশাসক মোঃ আনোয়ার হোসাইন আকন্দকে অবহিত করা হলে তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন।
যার প্রেক্ষিতে বিক্ষুব্ধ সংবাদকর্মীরা এ বিষয়ে অন্যকোন ধরণের পদক্ষেপ না নিয়ে আগামী শনিবার সকাল পর্যন্ত প্রেস ক্লাবের চলমান সাধারণ সভাটি মুলতবী ঘোষণা করেন। অন্যথায় ফের বেঠক করে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হবে বলে জানান বিক্ষুব্ধ সংবাদ কর্মীরা।
চিঠিতে ইউএনও উল্লেখ করেন, ১৮ নভেম্বর সকাল ১১টার দিকে লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবের নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটি নামে একটি পক্ষ সাধারণ সভার আহবান করেন। প্রেসক্লাবের অপর আরেকটি পক্ষ একই স্থানে একই সময়ে আরেকটি সভা আহবান করেন। এতে আইন শৃঙ্খলার অবনতির হওয়ার আশঙ্কায় সদর থানার অফিসার ইনচার্জকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। অথচ ওই চিঠির অনুলিপি দেওয়া হয় লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের চলমান কমিটির সভাপতিকে।
এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হোসাইন আহম্মদ হেলাল বলেন, লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্রে নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটি গঠনের কোন উল্লেখ নেই। শৃঙ্খলা বিরোধী ও নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে কিছু সদস্যের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ায় সংক্ষুব্ধরা প্রেসক্লাবের আগামী নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিভিন্নভাবে ফন্দি ফিকির শুরু করেন। এরই আলোকে একটি পক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে প্রেসক্লাবকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে ইউএনও নিয়মবহির্ভূত চিঠি পাঠিয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, একজন সরকারী কর্মকর্তা প্রেসক্লাবের নির্বাচিত চলমান কমিটি থাকার পরও কিভাবে কথিত আহবায়ক পরিচয় দেওয়া ব্যক্তির আবেদন গ্রহণ করে আমাকে পত্র দেন। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হয়েছে।
এদিকে নিয়ম বহির্ভূত চিঠি ইস্যুর বিষয়ে জানতে চাইলে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন বলেন, আমি নতুন এসেছি। বিষয়টি জেলা প্রশাসকের সাথে কথা বলে জানানো হবে।
এর আগে গতকাল (১৭ নভেম্বর) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের প্যাড জাল করে কামাল হোসেনসহ কতিপয় সদস্য ১৮ নভেম্বর সাধারণ সভা আহবান এবং নিজেদেরকে প্রেসক্লাবের নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক ও সদস্য সচিব এবং সদস্য পরিচয় দিয়ে পোস্ট করেন। এবিষয়ে প্রেসক্লাবের পক্ষে সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরী করতে গেলে ওসি- পুলিশ সুপারের সাথে আলাপ করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২০২০-২১ সালের কার্যনির্বাহী পরিষদের আয়-ব্যয় হিসাব, ভোটার তালিকা হালনাগাদ, আগামী ২০২২-২০২৩ইং এর নির্বাচন সংক্রান্তসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়।
লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হোসাইন আহম্মদ হেলাল এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল মালেক (ইত্তেফাক) এর সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র সংবাদিক গাজী গিয়াস উদ্দিন (দৈনিক জনতার), আবুল কালাম আজাদ (এনটিভি), সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন হাওলাদার (রূপসী লক্ষ্মীপুর), আজিজুল হক (বাংলাদেশ অবজারবার), সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস নয়ন (একুশে টিভি), সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. কাউছার (এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ), সাইদুল ইসলাম পাবেল (বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ২৪ টেলিভিশন ), সিনিয়র সাংবাদিক মহিউদ্দিন ভূঁইয়া মুরাদ (চ্যানেল আই ও জনকণ্ঠ), এবিএম নিজাম উদ্দিন (গাজী টিভি), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম স্বপন (যায়যায়দিন), মো. মাহবুবুল ইসলাম ভূঁঞা (সময়টিভি), তৌহিদুল রহমান রেজা (ডিভিসি নিউজ), মাজহারুল আনোয়ার টিপু (বৈশাখী টিভি), হোসাইন আহমদ শাহজাহান (বাংলা ভিশন), কামাল উদ্দিন (ভোরের ডাক), কাজল কায়েস (কালেরকণ্ঠ), ক্রীড়া সম্পাদক আতোয়ার মনির (একাত্তর টিভি ও সমকাল), মীর ফরহাদ হোসেন সুমন (বার্তা২৪), জাহাঙ্গীর লিটন (ভোরেরর্দ্পন ও রাইজিং বিডি), আনিস কবির (যমুনা টিভি), তাপস সাহা (দিপ্তটিভি), শাকের মোহাম্মদ রাসেল (মাছরাঙা টিভি), নজরুল ইসলাম জয় (শীর্ষ সংবাদ), পলাশ সাহা (আরটিভি) মাসুদুর রহমান ভুট্টু (দৈনিক সংবাদ), আবু জাকের রাবেত ( আল-চিশ্ত), আনোয়ার রহমান বাবুল (দেশজনতা), এসএম বাবর (ইনকিলাব), রেজাউল করিম পারভেজ (ডেইলি সান), কোষাধ্যক্ষ ফিরোজ উদ্দিন হাওলাদা(আজকের প্রত্যাশা), মো. জহিরুল ইসলাম (উপকূল প্রতিদিন), প্রচার সম্পাদক জহিরুল ইসলাম শিবলু (আমাদের অর্থনীতি), নির্বাহী সদস্য রবিউল ইসলাম খান (আজকালের খবর), মো. আলী হোসেন (আমার সংবাদ), একিউএম সাহাবউদ্দিন (দৈনিক করতোয়া), কাজী মাকসুদুল হক (কালের প্রবাহ), সাজ্জাদুর রহমান (যুগান্তর) সোহেল মাহমুদ মিলন (বিজয়টিভি), নুর আহম্মেদ মিলন (সরেজমিন), মোস্তাফিজুর রহমান টিপু (বাংলাদেশের খবর), নজরুল ইসলাম দিপু (লক্ষ্মীপুর আলো), মো. রাকিব হোসাইন রনি (বণিকবার্তা), মো. সোহেল রানা (বাংলাদেশ জার্নাল ও লক্ষ্মীপুর সমাচার), আরিফ হোসেন (ভোরের সময় ও এশিয়া বানী), কিশোর কুমার দত্ত (লাখোকন্ঠ), আনিছুর রহমান মোহন (যোগাযোগ প্রতিদিন)সহ প্রেসক্লাবের সদস্যসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email