‘টেন্ডার-চাকরি-প্রমোশন-বদলির তদবির করবেন না, এসব আমার সক্ষমতার বাইরে’

মোস্তাফা জব্বার

‘আমার কাছে যেসব ম্যাসেজ আসে তার শ্রেণিবিন্যাস করে দেখলাম যে, বেশির ভাগ হলো টেলিটকের নেটওয়ার্কবিষয়ক। আমি সবিনয়ে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যে, টেলিটক তার সাধ্যমতো চেষ্টা করছে তার নেটওয়ার্ক বাড়াতে। তবে তাদের সক্ষমতার বিষয়টি বিবেচনা করবেন। তারা এখন হাওর-বাওর-দ্বীপ, পাহাড়, চর ইত্যাদিতে নেটওয়ার্কের কাজ করছে। এর দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ চলছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন নিয়ে টেলিটক ২১০৪ কোটি টাকার একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে, সেটি গ্রামাঞ্চলে নেটওয়ার্ক তৈরি করার জন্য। আমি পুরো বিষয়টা সম্পর্কে সচেতন। টেলিটকের প্রতি আপনাদের ভালোবাসার জন্য ধন্যবাদ। কিন্তু টেলিটক অন্য অপারেটরদের মতো সক্ষমতা রাখে না, আপনার ঘরে নেটওয়ার্ক পৌঁছাতে পারলে আমরা খুশি হব। একদিন সেটি আমরা পারব, তবে রাতারাতি পারব না। আশা করি, বিষয়টি অনুধাবন করবেন। আমাকে ম্যাসেজ দেবার দরকার নেই। বন্ধু হবার অনুরোধ শতকরা ৯৯ ভাগ সঠিক নয়, তাদের নাম ইংরেজি হরফে ও অন্য অনেক যোগ্যতায় আমি গ্রহণ করতে পারছি না। ৫ হাজার থেকে বন্ধুর সংখ্যা ৩,৯৫৩ এ নামিয়েছি। প্রয়োজনে আরও কমবে। মনে রাখবেন ফেসবুক বন্ধু পরিচিতদের জন্য। অনুগ্রহ করে টেন্ডার-চাকরি-প্রমোশন-বদলির তদবির করবেন না। এসব আমার সক্ষমতার বাইরে।’

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

লেখক : ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email