এত রোগের ‘ওষুধ’ লাল শাক!

লাল শাক অত্যন্ত পরিচিত। বিভিন্ন শাকের পাশাপাশি অনেকেই লাল শাক খেয়ে থাকেন। এই শাকের রয়েছে নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। আসুন জেনে নেওয়া যাক- লাল শাকের গুণাগুণ।

অন্যান্য শাকের মতোই এই শাকেও প্রচুর ফাইবার, উদ্ভিজ্জ প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, আয়রন এবং নানা ধরনের ভিটামিন রয়েছে। কিন্তু সেগুলো বাদ দিয়েও লাল শাক নানা ধরনের উপকার করে।

১. হাড়ের ক্ষয় রোধ করতে এই শাকের জুড়ি নেই। অন্য বহু শাকের তুলনায় এই শাকে অনেক বেশি পরিমাণে ভিটামিন কে রয়েছে। ৪০ বছরের পরে অনেকের হাড়ের ক্ষয়ের পরিমাণ বাড়তে থাকে। লাল শাক সেই ক্ষয় কমায়।

২. লাল শাক নিয়মিত খেলে দৃষ্টিশক্তি ভাল হয়। তাছাড়া কিডনিরও উপকার হয়।

৩. এই শাক রক্তে লোহিত কণিকা বাড়াতে সাহায্য করে। যারা রক্তাল্পতায় ভুগছেন, তাদের জন্য এই শাক খুবই উপকারী।

৪. সমীক্ষা বলছে, যারা সপ্তাহে দু’-তিন দিন লাল শাক খান, তাদের হৃদরোগের আশঙ্কা কমে। তাদের রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

৫. সব শেষে এই শাকের এমন একটি গুণের কথা উল্লেখ করা যাক, যেটি অন্য কোনও শাকে নেই। লাল শাক বাড়িতে আনার পরে তার মূলটি অনেকেই ফেলে দেন। কিন্তু এই মূল লবণ পানিতে ভিজিয়ে রাখতে পারেন। পরে সেই পানি দিয়ে কুলকুচি করলে দাতের হলুদ ছোপ উধাও হয়। মাত্র কয়েক সপ্তাহেই দাঁত ঝকঝকে হয়ে যায়।

Print Friendly, PDF & Email