মাদক সংশ্লিষ্ট আলোচনায় তিন্নির নাম না জড়ানোর অনুরোধ

জনপ্রিয়তা শীর্ষ থেকেই একসময়ে আড়ালে চলে যান মডেল-অভিনেত্রী শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি। শোনা যায়, হতাশা থেকে তিনি মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন । তবে সেসব এখন অতীত। দীর্ঘদিন ধরে মিডিয়ায় উপস্থিতি নেই তিন্নির। পুরোদস্তুর সংসার ও সন্তানের দেখাশুনা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সাবেক এ আলোচিত অভিনেত্রী। সম্প্রতি তারকাদের মাদক সংশ্লিষ্টতার ঘটনায় তাকে নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। তাই বিরক্ত প্রকাশ করেছেন তিন্নি।

মঙ্গলবার ফেসবুকে এক দীর্ঘ স্ট্যাটাসে তিন্নি লিখেছেন, ‘২০১০ সাল থেকে একই কাসুন্দি। কী হলো, কীভাবে হলো- এসব চলছে, হায়রে মানসিকতা! সময়ের সঙ্গে মানুষের উন্নতি হয় আর আমাদের ওই একই ঘ্যানঘ্যানানি আর ভালো লাগে না। তখনকার আমি আর এখনকার আমির মধ্যে পার্থক্য হলো- এখন আমি সুন্দর দুটি কন্যাসন্তানের মা। তখন ২১-২২ বছর বয়সী তিন্নি মডেল-অভিনেত্রী ছিল। আর এখন ৩৭ বছর বয়সী নারী ও একজন মা।’

তিন্নি উল্লেখ করেন, ‘আমি আগের মতোই মনখোলা ও আশাবাদী মানুষ। কারো কষ্টের সময়ে পাশে দাঁড়াবো। কষ্ট পেয়েছি তাই কষ্টের মূল্য বুঝি। আমি আর অভিনয় করছি না। সুতরাং একজন মাকে এসব চুলকানি থেকে বাদ দেওয়া যায় না! আমরা সবাই তো কারো সন্তান, আমারো তো মা-বাবা আছে নাকি? আমাদের নিয়ে অন্য মানুষ খারাপ বললে, আমাদের সন্তান, মা-বাবাও কষ্ট পান। এটাই কি স্বাভাবিক নয়? আমরা কি পারি না ভালোভাবে-ভদ্রভাবে সবকিছু উপস্থাপন করতে? দয়া করে নিজে বাঁচুন অন্য কেউ বাঁচতে দিন! আসুন সবাই আবার মানুষের মতো কাজ করি। জীবনে ভণ্ডামি করি নাই, করলে হয়তো অনেক ভালো জীবন হতো।’

আনন্দধারা ফটোজেনিক প্রতিযোগিতা ২০০২-এ অংশ নিয়ে মডেলিংয়ের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন তিন্নি। এর দুই বছর পর মোস্তফা সরয়ার ফারুকী নির্মিত ধারাবাহিক ‘৬৯’ নাটকের মাধ্যমে অভিনয় শুরু করেন। তারপর অভিনয় করেছেন বেশ কিছু নাটকে। চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিন্নি। তার অভিনীত সিনেমার মধ্যে রয়েছে ‘ডুবসাঁতার’, ‘মেড ইন বাংলাদেশ’, ‘সে আমার মন কেড়েছে’।

Print Friendly, PDF & Email