কুন্দ্রার সাথে বোন শিল্পার বিয়ের পর ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছিলেন শমিতা!

স্বামী রাজ কুন্দ্রা পর্ন কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়ার পর বিপাকে পড়েছেন বলিউডের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি। তবে বাদ যাচ্ছে না নায়িকার পরিবার। এই বিতর্কের মাঝে বারবার নাম উঠছে শিল্পার বোন শমিতা শেঠিরও।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, রাজ কুন্দ্রা ‘বলি ফেম’ অ্যাপের একটি ছবিতে শ্যালিকাকে কাস্ট করার পরিকল্পনা করেছিলেন, এমন দাবি করেন পর্নকাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত গহনা বশিষ্ঠ। রাজ-শিল্পা-শমিতার একাধিক পুরোনো ভিডিও নতুন করে ছড়িয়ে পড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পর্নকাণ্ডে বোন এবং দুলাভাইয়ের পাশেই রয়েছেন শমিতা, তা ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। শিল্পার সঙ্গেই ছোট থেকে দারুণ বন্ডিং শমিতার, তবে জানেনি শিল্পার বিয়ের পর নাকি অবসাদে ভুগেছিলেন শমিতা!

দ্য কপিল শর্মা শো-তে হাজির হয়ে অকপটে এই কথা মেনে নিয়েছিলেন শমিতা। ছোট থেকেই বন্ধুর মতো একসঙ্গে বড় হয়েছেন শিল্পা-শমিতা। বিয়ের পর শিল্পা বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ায় ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছিলেন শমিতা।

এমনটা তখন নিজের মুখে বলেন তিনি। তবে জামাইবাবুকে দারুণ পছন্দ তার। শিল্পা বলেন, আমি রাজের বিয়ের প্রস্তাব গ্রহণ করবার আগে থেকেই শমিতা সারাক্ষণ ওর গুণগান করত। বলতো, খুব ভালো ছেলে তুমি ওকে ফিরিয়ে দেবে না।

জমাইবাবু মনের মতো হলেও দিদির বিয়ের পর একাকীত্ব গ্রাস করেছিল শমিতাকে। তিনি বলেন, ‘আমি প্রায় একমাস ডিপ্রেশনে ছিলাম। শিল্পা বাড়িতে থাকলে ওর সঙ্গে হাসিঠাট্টা করে সময় কাটত কিন্তু ও চলে যাওয়ার পর ওর অনুপস্থিতি আমায় ঘিরে ধরেছিল’।

এই শো-তেই শ্যালিকাকে নিয়ে হাসিঠাট্টা করে বেশকিছু বিতর্কিত মন্তব্য করেন রাজ। তিনি বলেন, শিল্পা ঘড়ির কাঁটা ধরে সাত তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পরে, তাই রাত জেগে পার্টি করতে হলে তিনি শ্যালিকার সহায় হন।

রাজ কুন্দ্রা বলেন, শিল্পা ৭টায় খাবার খেয়ে রাত ৯টার মধ্যে বই পড়ে ঘুমিয়ে পড়ে। আর তারপর আমি পার্টি করতে হলে সোজা ফোন দিতাম শমিতাকে। আমরা দু’জনেই পার্টি করতে ভালোবাসি। এই কারণেই তো ওকে বিয়ের জন্য আমি এখনও জোর করছি না।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

Print Friendly, PDF & Email