লক্ষ্মীপুরে কঠোরভাবে পালিত হচ্ছে ‘লকডাউন’

নিজস্ব প্রতিবেদক :

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে নতুন করে শুরু হওয়া লকডাউনের প্রথম দিন লক্ষ্মীপুরে কঠোরভাবে পালিত হচ্ছে। শুক্রবার ভোর থেকে সড়কে গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়া সব বিপণিবিতানও রয়েছে বন্ধ। লকডাউন সর্বাত্মকভাবে পালনের জন্য জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি জেলা পুলিশ ব্যাপক তৎপর রয়েছে।

শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেল, কঠোর লকডাউন কার্যকর করার জন্য পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় তৎপর রয়েছে। শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় পুলিশ চেক পোস্ট বসিয়েছে। লকডাউন সর্বাত্মকভাবে পালনে বাধ্য করতে পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে প্রধান সড়ক ও মোড়ে-মোড়ে টহল দিচ্ছে পুলিশ। রাস্তায় পুলিশের টহল গাড়ি, পণ্যবাহী ট্রাক, রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সসহ জরুরী প্রয়োজনে ব্যবহৃত সীমিত সংখ্যক যানবাহন ছাড়া তেমন যানবাহন চোখে পড়ছে না।

এদিকে সড়কে যানবাহন না থাকলেও কারণে অকারণে বের হচ্ছেন মানুষ। এদের কেউ বলছেন বাজারে যাবেন আবার কেউ বলছেন ডাক্তারের কাছে। আবার অনেকে বলছেন আত্মীয়ের বাড়িতে যাবেন। জনগণকে লকডাউন মানাতে যথেষ্ট তৎপর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পথে পথে দেওয়া হয়েছে ব্যারিকেড। জরুরী কাজে কেউ বের হলেও পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান জানান, জেলাব্যাপী লকডাউন কার্যকর করতে জেলা পুলিশ সকলের সাথে সমন্বিতভাবে কাজ করছে। লকডাউন সফল করতে জেলার সবকয়টি থানায় চেক পোস্ট বসানো রয়েছে। বিনা প্রয়োজনে যেন কেউ ঘরের বাহির বের না হন সে জন্য কাজ করছে পুলিশ। আর যদি প্রয়োজনে বের হতে হয়, তাহলে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ জানান, লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য কঠোর অবস্থানে রয়েছে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসন। লকডাউনের নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ রোধে শুরু হওয়া দুই সপ্তাহব্যাপী লকডাউনের শেষ পর্যন্ত কঠোর অবস্থানে থাকবে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসন।

Print Friendly, PDF & Email