লক্ষ্মীপুরে আ’লীগ নেতার মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক  :
লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে অস্ত্র ও ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় আব্দুর রব বেপারী নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা ও তার এসএসসি পরীক্ষার্থী দুই ছেলেকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে কোস্টগার্ড। ঘটনাটি সাজানো নাটক আখ্যা দিয়ে ওই আওয়ামীলীগ নেতা ও তার দুই ছেলের মুক্তির দাবীতে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনতা। বৃহস্পতিবার (১৫জুলাই) দুপুরে ‘টাংকি বাজার মাছঘাট, বাজার কমিটি ও জেলেবৃন্দ’ ব্যানারে রামগতি উপজেলার সীমান্তবর্তী চর গাজী ইউনিয়নের টাংকি বাজার এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তারা।
মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং স্থানীয় টাংকি বাজার মাছঘাট পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুর রব বেপারীকে তার নিজ বাড়ি থেকে উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে আটক করে কোস্টেগার্ড। পরে ডাকাতি প্রস্তুতির ঘটনার নাটক সাজিয়ে তাকে এবং তার দুই ছেলেকে নিকটস্থ থানায় না নিয়ে নোয়াখালী হাতিয়া থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এসময় বক্তারা অভিযোগ করে আরো বলেন, মাসিক মাশওয়ারা না পাওয়ায় ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে মাছঘাট সভাপতি আবদুর রব বেপারীকে ফাঁসিয়েছে কোস্টগার্ড। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আওয়ামীলীগ নেতা ও তার দুই ছেলের কারামুক্তি দাবী করেন তারা। অন্যথায় কোষ্টগার্ডের বিরুদ্ধে আরো কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন বক্তারা।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, টাংকি বাজার বড় মসজিদের ঈমাম মাওলানা ফজলুল হক, টাংকি বাজার ব্যবসায়ী মাওলানা সফিক, জহির বেপারী, প্রতিবেশী মো. জামাল উদ্দিন, মো. জহির উদ্দিন, স্থানীয় জনকল্যাণ শিক্ষা ট্রাষ্ট হাই স্কুলের দশম শ্রেণীর (দুই ছেলের সহপাঠি) ছাত্র মো. সাকিব হোসেন ও প্রত্যক্ষদর্শী সিএনজি চালক মো. আলা উদ্দিন সহ অনেকে।
মানববন্ধনে কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেয়।
প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার ভোর রাতে কোস্টগার্ডের দক্ষিণ জোনের নোয়াখালী হাতিয়া স্টেশনের একদল কোস্টগার্ড সদস্য লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরগাজী এলাকার আব্দুর রব বেপারীর বাড়িতে অভিযান চালান। এ সময় হাতিয়ার কোস্টগার্ড আব্দুর রব বেপারী এবং তার এসএসসি পরীক্ষার্থী দুই ছেলে আব্দুর রহিম (১৮) ও মো. রবিনকে (১৬) তুলে নিয়ে যায়। এসময় স্থানীয়রা ঘেরাও করলে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে কোস্টগার্ড। এতে ভয়ে সরে যান স্থানীয়রা। পরে ডাকাতি প্রস্তুতি, গোলাগুলি ও অস্ত্র উদ্ধারের অভিযোগ এনে আব্দুর রব বেপারীসহ তিনজনকে রামগতি থানায় না এনে হাতিয়া থানায় সোপর্দ করেন তারা।

Print Friendly, PDF & Email