লক্ষীপুরে গাড়ি ভাঙচুর মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় চরলরেন্স ইউপি চেয়ারম্যান আহসান উল্লাহ হিরণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও চরলরেন্স ইউনিয়নের মরহুম আনিছ পাঠানের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১জুন স্থানীয় তোরাবগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু ভোট কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন। ওই সময় নৌকার প্রার্থী মির্জা আশরাফুল জামান রাসেল স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সাল আহমদ রতনের লোকজনের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার সময় জেলা সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকুর গাড়িতে হামলা করা হয়। পরে জেলা সভাপতি পিংকুর গাড়ি চালক মো. নিজাম উদ্দিন বাদী হয়ে কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও যুবলীগের আহবায়ক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পীসহ মোট ৫৫জনের নামে মামলা করা হয়। ওই মামলায় আহসান উল্লাহ হিরণ ৪৭ নম্বর এজাহারভুক্ত আসামী।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মাখন লাল রায় জানান, জেলা সভাপতির গাড়ি ভাঙচুরের মামলার আসামী হিরণকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে উপজেলা যুবলীগের প্রথম যুগ্ম আহবায়ক হিরন চেয়ারম্যানের গ্রেফতারে যুবলীগে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। উপজেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ আহসান উল্লাহ হিরনের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছেন।সাথে সাথে প্রকৃত দোষীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও দাবি করেন যুবলীগ নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email