অসহায়দের পাশে লক্ষ্মীপুরে “প্রজেক্ট মিটব্যাংক”

তাবারক হোসেন আজাদ, লক্ষ্মীপুর:

আমরা বৈশ্বিক এক মহা সঙ্কটের মুখোমুখি অবস্থান করছি। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গোটা বিশ্বেই অর্থনৈতিক মন্দা তৈরি হচ্ছে। দেশে দেশে লকডাউনের ফলে মধ্যম ও নিম্ন আয়ের লোকগুলো দিশেহারা হয়ে পড়ছে। অনেকের ঘরেই খাদ্যসামগ্রীর সঙ্কট প্রকটভাবে দেখা দিচ্ছে। যারা দিনমজুর, তারা পরিবার নিয়ে অভুক্ত থাকছে। ঘর বাজারসদাই শূন্য। আয়ের সবরকম উৎস বন্ধ। কোত্থেকে দু’বেলা খাবারের ব্যবস্থা হবে তা তারা নিজেরাও জানে না।

তাই বাধ্য হয়ে অপেক্ষার প্রহর গোনছে, কেউ এসে দু’মুঠো খাবার ও বাজার করে তাদের দেয় কিনা !

একরুন দৃশ্য থেকে “সামর্থ্যবানদের কোরবানীর মাংস পৌঁছে যাক সামর্থহীনদের ঘরে” এ স্লোগানে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের কৃতি সন্তান সহকারি পুলিশ সুপার মিরাজুর রহমানের পৃষ্টপোষকতায় গড়ে তুলেছেন “আমরা রায়পুর” নামের এ সংগঠন।

এ মহতী উদ্যোগের পেছনে প্রতিশ্রুতিশীল যুবক ও তরুনরা জড়িত। যারা নির্মোহভাবে সমাজের অসহায় মানুষের জন্য কাজ করতে আগ্রহী। তাদের নেতৃত্বে রয়েছেন তরুন সমাজ সেবক কামরুল আল মামুন। এসংগঠনের ব্যানারে অসহায় ও দরিদ্রকে খাবার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

সহকারি পুলিশ সুপার মিরাজুর রহমান বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইতিমধ্যে আমরা দেখতে পেয়েছি, টানা দু’দিন না খেয়ে থাকা বৃদ্ধের খাবারের জন্য আহাজারির দৃশ্য। এরকম এক-দু’জন নয়, হাজার হাজার দরিদ্র দিনমজুর অনাহারে মৃত্যুর প্রহর গোনছে। এই সঙ্কটপূর্ণ মুহূর্তে ইসলাম আমাদের শেখায় মানবিক হতে। অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে। তাদের দুমুঠো খাবারের ব্যবস্থা করে দিতে। আমাদের এ সামাজিক সংগঠন গত বছর ধরে অসহায়দের সগযোগিতা দিচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email