লক্ষ্মীপুরে বৃদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু : ৫ দিন পর কবর থেকে মৃতদেহ উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরে আয়াতের নেছা (৮৫) নামে এক বৃদ্ধা নারীর রহস্যজনক মৃত্যুর ৫ দিন পর কবর থেকে মৃতদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। শনিবার (৩ জুলাই) সকালে জেলার সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের কাঞ্চনীবাজারের মনু মিয়া আমিন বাড়ির পারিবারিক কবস্থান থেকে মৃতদেহটি উত্তোলন করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। আয়াতের নেছা ওই বাড়ির মৃত খোরশেদ আলমের স্ত্রী।

জানা গেছে, আয়াতের নেছা তার পুত্রবধূর সাথে বসবাস করতেন। গত ২৬ জুন রাতে আয়াতের নেছার রহস্যজনক মৃত্যু হলে পরদিন তড়িগড়ি করে পরিবারের সদস্যরা তার মৃতদেহ দাফন করে। এ ঘটনায় গত ৩০ জুন ওই নারীর ভাইয়ের ছেলে মারুফ বাদি হয়ে অজ্ঞানামাদের বিবাদী করে সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে শনিবার সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, আয়াতের নেছার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে, তার শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ ছিলো। তার এক ছেলে ও তিন মেয়ে। ছেলে নিজাম উদ্দিন ডুবাই প্রবাসী। পুত্রবধূর সাথে তিনি বাড়িতে থাকতেন। বিভিন্ন সময় শ^াশুড়ি ও পুত্রবধূর সাথে ঝগড়া লেগে থাকতো। স্থানীয়দের ধারণা, পারিবারিক বিরোধের জেরে আয়াতের নেছাকে হত্যা করা হয়েছে।

সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফারুক আবদুল্লাহ বলেন, মৃতদেহ উত্তোলন করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

Print Friendly, PDF & Email