ইয়েমেনে জাহাজডুবির ঘটনায় শতাধিক মৃত্যুর আশঙ্কা

ঢাকা: ইয়েমেনের লাহিজপ্রদেশে জাহাজডুবির ঘটনায় শতাধিক অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit

স্থানীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে আরব নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার জাহাজডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে আফ্রিকার শতাধিক অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সরকারের এক কর্মকর্তা বলেন, ইতোমধ্যে ২৫টি মরদেহ উদ্ধার করেছেন জেলেরা। আরও অনেক মরদেহ ভেসে আছে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা জানি না তাদের সঙ্গে কী হয়েছে। কিন্তু স্থানীয় জেলেরা আমাদের জানিয়েছেন, তারা সাগর থেকে ২৫টি মরদেহ উদ্ধার করেছে।

কোস্টগার্ডের এক কর্মকর্তা বলেন, এ ঘটনায় ৩শর বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয়রা অনেক মরদেহ কবর দিয়েছেন।

অ্যাডেনভিত্তিক পত্রিকা আল-আইয়ামের খবরে বলা হয়, লাহিজপ্রদেশের রাস আল আরার জেলেরা একটি জাহাজের সঙ্গে প্রায় ৪০০ অভিবাসনপ্রত্যাশী বহন করা বোটের সংঘর্ষের পর ১৫০ মানুষের মরদেহ উদ্ধার করে। এ বোট অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে হর্ন অব আফ্রিকা থেকে ইয়েমেনের উপকূলের দিকে আসছিল।

ইন্টারন্যাশনাল অরগানাইজেশন অব মাইগ্রেশন (আইওএম) বিষয়টি অবগত রয়েছে বলে টুইটারে একটি পোস্ট করে জানিয়েছে। তবে সেখানে প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যার বিষয়ে কিছুই বলা হয়নি।

সংস্থাটি বলছে, আইওএম দেখেছে যে, ইয়েমেন উপকূলে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বহন করা একটি বোট ডুবে গেছে।  আইওএম বেঁচে থাকাদের জন্য প্রয়োজনীয় সাড়া দিতে প্রস্তুত।

করোনাভাইরাস এবং যুদ্ধের কারণে বিপর্যস্ত ইয়েমেনে আফ্রিকা থেকে হাজার হাজার মানুষ আশ্রয় নেওয়ার চেষ্টা করেন। এ অভিবাসনপ্রত্যাশীরা মূলত সাবওয়া ও রাস আল আরা পয়েন্ট হয়ে ঢোকার চেষ্টায় থাকেন। আর এখান থেকে সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য এ জায়গাগুলোকে তারা ব্যবহার করেন ট্রানজিট পয়েন্ট হিসেবে।

Print Friendly, PDF & Email