লক্ষ্মীপুরে আ:লীগ নেতা চিকিৎসাবিহীন মৃত্যুর প্রহর গুনছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার রামগতি পৌর সভার আওয়ামী যুবলীগের দুই বারের সাংগঠনিক সম্পাদক, বর্তমানে রামগতি উপজেলা যুবলীগের সদস্য, মিজানুর রহমান মিঠু পিতাঃ মৃত মহসিন মিয়া (গ্রামঃ শিক্ষা গ্রাম, রামগতি পৌর সভা, ৮ নং ওয়ার্ড) স্ত্রীসহ এক ছেলে, দুই মেয়ে নিয়ে তার সংসার। বর্তমানে ক্যান্সারে আক্রান্ত।
জন্ম থেকে আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান, তাদের পুরো পরিবার আওয়ামী লীগ সমর্থিত, সারাজীবন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কোন সুবিধা ভোগ করতে পারে নাই,সাহায্য সহযোগিতা পায় নাই, এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের কোন নেতা মেয়র চেয়ারম্যান কেউ তার পাশে দাঁড়ায়নি বা দেখতে যায়নি, অসহায় দুস্থ জরাজীর্ণ ঘরে বসবাস।
উপজেলার আওয়ামী রাজনীতির নিবেদিত সেবক, তাকে নিয়ে রামগতি আলেকজান্ডার পৌর আ:লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু নাছের ও রামগতি উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ভিপি হেলাল ফেজবুকে তার চিকিৎসা ও আর্থিক সাহায্যের জন্য বিভিন্ন লেখা পোস্ট করেন এবং তার রাজনীতিক কর্মকান্ড গুলো তুলে ধরেন।
পোস্টগুলোতে লেখা ছিলো, যৌবনের সুন্দর স্বর্নালী সময় গুলো উজাড় করে দেওয়া রাজপথের সাহসী যোদ্ধা সকলের পরিচিত মুখ মিজানূর রহমান মিঠু ক্যান্সরে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাহীন অবস্হায় মৃত্যুর প্রহর গুনছে।
ক্যান্সারের মতো ব্যয় বহুল চিকিৎসার আর্থিক সামর্থ্য মিঠুর নাই, ক্ষমতার স্বাদ সকলের কপালে জুটে না, আদর্শিক যোদ্ধারা নৈতিকতা বিসর্জন দিতে পারে না বলেই আজীবন বঞ্চিত থাকে, সুদিনের সুযোগ সন্ধানী যারা রাজনীতিকে ব্যবহার করে বিত্তের মালিক হয়েছে, কালো টাকায় কমিটি কিনে নেতা হয়েছেন বা ভবিষ্যতে হবেন তারা মিঠুদের মতো রাজনৈতিক কর্মিদের মুল্যায়নতো দূরের কথা দল ক্ষমতায় থাকার সুফল ত্যাগি কর্মিদের কপালে কখনোই জুটে না।
তবুও স্বপ্ন আছে বলেই মানুষ বেঁচে থাকে? রাজনীতির মায়াজালে আবদ্ধ সকল বন্ধুদের প্রতি বিনীত আহ্বান আসুন সকলে মিলে অসুস্থ মিঠুর পাশে দাঁড়াই, এবং চিকিৎসার জন্য সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে মানবতাকে বাঁচিয়ে রাখি।
Print Friendly, PDF & Email