লক্ষ্মীপুরে ভুমি কর্মকর্তাকে মারধর মামলায় : আ’লীগ নেতা গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া মেঘনা নদী থেকে অবৈধ ড্রেজারে বালু উত্তোলনের ঘটনায় ব্যবস্থা নেওয়ায় জাকির হোসেন মোল্লা নামের আ’লীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে (০৯ মে) দক্ষিন চরবংশী ইউপির মোল্লারহাট বাজার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় মারামারিসহ আরো ৩টি মামলা চলমান রয়েছে বলে পুলিশ জানান।

গ্রেপ্তারকৃত আ’লীগ নেতা জাকির মোল্লা চরবংশী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও আ’লীগ সভাপতি আবদুর রশিদ মোল্লার মেঝ ছেলে এবং তিনি ইউপির আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

হাজিমারা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ (ওসি) ইউসুফ আলী জানান, গত ১৫ মার্চ উপজেলার দক্ষিন চরবংশী ইউপির মোল্লারহাটবাজার সংলগ্ন পানির ঘাট নামক স্থানে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করেন জাকির মোল্লা। এসংবাদ পেয়ে একই ইউপির সহকারি ভূমি কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদসহ কর্মচারিরা ঘটনাস্থলে আসেন। এসময় আ’লীগ নেতা জাকির মোল্লাসহ তার দুই অনুসারী আবুল হোসেন ও মাসুদ শেখ ভুমি কর্মকর্তাকে মারধর করে।

এঘটনায় বেশি বাড়াবাড়ি করলে দেখে নেয়ার হুমকিও দেয়া হয়। এঘটনায় (১৬ মার্চ) থানায় ভুমি কর্মকর্তার মামলায় করলে আবুল হোসেন ও মাসুদ শেখ কারাভোগ করে। অবশেষে ওই মামলায় রোববার দুপুরে আ’লীগ নেতা জাকির মোল্লাকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে ।

উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আক্তার জাহান সাথী বলেন, ‘সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলের কাছ থেকে এমন ব্যবহার অপ্রত্যাশিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যে ১০ অগ্রাধিকার প্রকল্প রয়েছে তার মধ্যে নদী সুরক্ষা অন্যতম। আমরা চাই আ’লীগের নেতারা প্রধানমন্ত্রীর নদী সুরক্ষার প্রকল্প বাস্তবায়নে আমাদের সহযোগিতা করবেন।

Print Friendly, PDF & Email