‘মালদ্বীপকে তামাশা বানিয়ে ফেলেছে, সেলিব্রেটিদের লজ্জা হওয়া উচিত’

ভারতে করোনা মহামারী খুবই ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। চরম সঙ্কটে পড়েছে দেশটির স্বাস্থ্যখাত। অনেকেই খেতে পারছে না, চিকিৎসা নিতে পারছে অর্থের অভাবে। এমন মহামারীর সময়ে ভারতের বিভিন্ন শোবিজ ইন্ডাস্ট্রির তারকারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন মালদ্বীপে। সেসবের ছবিও শেয়ার করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর তাতে লাইক-কমেন্টের বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন ভক্ত-অনুসারীরা। কিন্তু এমন অসংবেদনশীল আচরণের জন্যও সমালোচিতও হচ্ছেন তারকারা।

বলিউডের স্বনামধন্য একজন অভিনেতা নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকী। করোনাকালে নিজের গ্রামের বাড়িতে পরিবারের সঙ্গেই আছেন তিনি। সম্প্রতি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারকালে বলিউডের জনপ্রিয় এ অভিনেতা বলেন, এসব সেলিব্রেটিরা এমন সময় অবকাশযাপনের ছবি পোস্ট করছে যখন বিশ্ব সবচেয়ে কঠিন মন্দার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে… মানুষের কাছে খাবার নেই। আর এরা বিনা প্রয়োজনে অর্থের অপচয় করছে। এদের লজ্জা হওয়া উচিত।

ভারতীয় তারকাদের বেশিরভাগই অবকাশযাপনের জন্য যাচ্ছেন দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপে। নওয়াজ বলেন, এসব লোক মালদ্বীপকে তামাশা বানিয়ে ছেড়েছে। মানবতার জন্য এসব অবকাশযাপন নিজের মধ্যেই রাখা উচিত। সবখানে মানুষ অতিকষ্টে দিনযাপন করছে। করোনা সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী। বিবেক খরচ করে কাজ করুন। যাদের দিন পার করতেই কষ্ট হচ্ছে তাদের জ্বালা আর বাড়াবেন না। ভারতের বিনোদনজগতের মানুষদের আরও বেশি পরিপক্ক আচরণের অধিকারী হওয়া প্রয়োজন বলেও মনে করেন নওয়াজ।

Print Friendly, PDF & Email