লক্ষ্মীপুরে প্রবাসীর জমি জবরদখল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরে সৌদি প্রবাসী মো. হানিফ’র জমি দখল করে দোকানঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে। গত ১৭ এপ্রিল জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন ফরাশগঞ্জ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতার নাম উল্লেখ করে ঘটনার দিন সন্ধ্যায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রবাসীর ভাই মো. ইউসুফ।

অভিযুক্তরা হলেন, জেলার কুশাখালী ইউনিয়নের ফরাশগঞ্জ এলাকার যুবলীগ নেতা আব্দুল করিম, মো. ইব্রাহীম, মো. জহির, কালা মিয়া, জাহাঙ্গীর ও মো. ইউসুফ।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বিরোধকৃত সম্পত্তি ভোগদখল করছেন ওই প্রবাসী। কিন্তু হঠাৎ রাতের আধারে ওই জমিতে টিনসেড দোকানঘর নির্মাণ করেন অভিযুক্তরা।

প্রবাসীর ভাই মো. ইউসুফ বলেন, যুবলীগ নেতা করিম লোকজন নিয়ে তাদের জমিতে দোকানঘর নির্মাণ করে। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ও যুবলীগ নেতাদের ছবি ও পেস্টুন টাঙিয়ে দেন। এ ঘটনায় তিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে যুবলীগ নেতা আবদুল করিম জানান, বিরোধকৃত জমি রামপুর গ্রামের মাও. আবদুস শহীদের ছেলে ফারুক হোসেন। তিনি নিজেই মিস্ত্রি দিয়ে দোকান ঘরটি নির্মাণ করেছেন। আমরা শুধু দেখাশুনা করছি।

ফারুক হোসেন বলেন, নির্মাণকৃত দোকান ঘরের সম্পত্তিটি আমাদের। তবে কয়েকবছর পূর্বে হানিফরা জমিটি তাদের দাবি করলে, তখন আদালতে একটা মামলা দায়ের করি। সে মামলাটি এখনো বিচারাধীন রয়েছে। বিচারাধীন জমিতে অনুমতি ব্যতিত নতুন স্থাপনা নির্মাণ করা যায় কি? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. সফি উল্যাহ বলেন, রাতের আধারে হানিফদের জমিতে দোকানঘর নির্মাণ করেন যুবলীগের লোকজন। শুনেছি সেখানে যুবলীগের দলীয় কার্যালয় করা হবে।

এ বিষয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুল করিম বলেন, জমি দখল করে দোকানঘর নির্মাণের অভিযোগটি পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email