ঢাকাThursday , 8 September 2022
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-বিচার
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া ও কৃষি
  7. খেলাধুলা
  8. গনমাধ্যাম
  9. চাকরি
  10. জাতীয়
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচন
  13. প্রবাসের খবর
  14. প্রযুক্তি সংবাদ
  15. ফিচার

পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদপ্রার্থী মাইনুল ইসলাম রনো

Link Copied!

আসন্ন পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচন ২০২২ এর তফসিল ঘোষণার পর থেকেই চেয়ারম্যান, সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদের প্রার্থীদের নিয়ে নির্বাচনী মাঠ বেশ সরব হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন প্রার্থীরা জানান দিচ্ছেন নিজের পরিচিতি, ইশতেহার ও কর্মপরিকল্পনা ও বিগত দিনের উন্নয়ন চিত্র। এর ধারাবাহিকতায় এবার পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের অন্তর্ভুক্ত গলাচিপা উপজেলা হতে সদস্য পদপ্রার্থী মাইনুল ইসলাম রনো। গলাচিপা উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা ও ১২ টি ইউনিয়নের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভোটেই জেলা পরিষদ সদস্য পদের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়বেন তিনি। ইতিমধ্যেই নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোট ও সমর্থন আদায়ে তিনি ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। চালিয়ে যাচ্ছেন জনসংযোগ, ফেইসবুক, ইন্টারনেট সহ বিভিন্ন মাধ্যমে করছেন প্রচারণা।

গত ২৩ অগাস্ট নির্বাচন কমিশন তিন পার্বত্য জেলা বাদ দিয়ে ৬১ জেলা পরিষদে ভোটের তফসিল ঘোষণা করেন। এতে সারা দেশের ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা ও সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত ৬৩ হাজারের বেশি জনপ্রতিনিধি ভোট দেবেন।

তফসিল অনুযায়ী, ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ১৮ সেপ্টেম্বর বাছাইয়ের পর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর।

পটুয়াখালীর জেলা পরিষদ নির্বাচনে এবার গলাচিপা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সফল চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ- সভাপতি এবং মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক মো. নুরুল ইসলাম মিয়ার সু-যোগ্য সন্তান ত্যাগী নেতা, সৎ, ন্যায়পরায়ন, সমাজ সেবক, জনদরদী ব্যাক্তিত্ব মো. মাইনুল ইসলাম রনো সম্ভাব্য প্রার্থী। শিক্ষা জীবনে তিনি স্নাতক (বি এ) ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

আরও পড়ুন-  নিজামউদ্দিন আউলিয়ার মাজার জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগ এর বর্তমান সদস্য মাইনুল ইসলাম রনো একজন আওয়ামী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। স্কুল জীবন থেকেই পারিবারিক রাজনৈতিক ঐতিহ্যে তার রাজনীতি শুরু হয়। ১৯৮৬ সালে তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন, পরে ১৯৮৯ সালে গলাচিপা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ১৯৯১ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত এবং ১৯৯৭ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত গলাচিপা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এর দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি রেড ক্রিসেন্ড এর গলাচিপা উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি, গলাচিপা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক (১৯৮৮ -১৯৯০) সাল। ৯০ এর স্বৈরচার বিরোধী আন্দোলন, বিএনপি জামাত জোট সরকাররের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে তিনি রাজ পথের একজন প্রতিবাদী আওয়ামীলীগ নেতা হিসেবে বহুবার অত্যাচার , জুলুম, ও নির্যাতনের স্বীকার হয়ে কারাভোগ করেছেন। এছাড়াও সামাজিক জীবনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। বিভিন্ন ধর্মী প্রতিষ্টানসহ সমাজসেবামূলক কর্মকান্ডে রয়েছে তার অসংখ্য অবদান।

গলাচিপা উপজেলায় একজন সক্রিয়, ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতা হিসেবে তার পরিচিতি ও ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। শত প্রতিকূলতার মাঝে দলের পিছনে অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন কিন্তু দলের কাছে সেই মাঈনুল ইসলাম রনো ঠিকমত মূল্যায়ন পায়নি, সবসময় দাবিয়ে রাখা হয়েছে তাকে। তিনি যখনই দলের কাছ থেকে কিছু চেয়েছেন, বারবার বঞ্চিত হয়েছেন। যার নামের সঙ্গে জড়িয়ে আছে আস্থা, ভরসা, ভালোবাসা। সংকট মূহুর্তে সবার পাশে থেকে কান্ডারীর ভুমিকা পালন করেছেন। আওয়ামীলীগে শতশত নেতা-কর্মী সৃষ্টি হয়েছে যার হাত ধরে তিনি হলেন মাইনুল ইসলাম রনো। এই জনপদে তিনি হলেন নেতা তৈরীর কারিগর। দলের প্রতি, নেত্রীর প্রতি তার নিবেদন এবং আত্মত্যাগ সর্বজন স্বীকৃত। নব্বইয়ের দশকে পটুয়াখালী জেলায় যে ক’জন তরুন জনপ্রিয় নেতা ছিলেন তিনি তারমধ্যে অন্যতম।

আসন্ন পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি গালাচিপা উপজেলার সর্বসাধারনের সেবার মান নিশ্চিত করতে ও উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে তাই দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন।

মাইনুল ইসলাম রনো বলেন, ‘আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে প্রার্থী হিসেবে সকল ভোটারদের সমর্থন ও সহযোগিতা আমি আশা রাখি। আমি চাই দলীয় ও জনপ্রতিনিধিদের সমর্থন পেয়ে নির্বাচিত হয়ে গালাচিপা উপজেলার সর্বসাধারনের সেবার মান নিশ্চিত করবো। আমার বাবা সাবেক চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম মিয়া তার জীবদ্দশায় মানবসেবা করে গেছেন। আমিও তার পথ অনুসরণ করে মানবসেবা করতে পারবো বলে আশা রাখি

শীর্ষসংবাদ/নয়ন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
ঢাকা অফিসঃ ১৬৭/১২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল ঢাকা- ১০০০ আঞ্চলিক অফিস : উত্তর তেমুহনী সদর, লক্ষ্মীপুর ৩৭০০