ঢাকাThursday , 18 August 2022
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-বিচার
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া ও কৃষি
  7. খেলাধুলা
  8. গনমাধ্যাম
  9. চাকরি
  10. জাতীয়
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচন
  13. প্রবাসের খবর
  14. প্রযুক্তি সংবাদ
  15. ফিচার

কুড়িগ্রামে পৃথক ঘটনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই জন নিহত

Link Copied!

কুড়িগ্রামে পৃথক ঘটনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নিহতরা হলেন কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার নূরনবী মিয়া (১৮) ও ফুলবাড়ী উপজেলার রফিকুল ইসলাম (৪৫)।
জেলার উলিপুর উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নুরনবী মিয়া (১৮) নামের এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে। ধানক্ষেতে পুতে রাখা আর্থিং তারের সাথে বৈদ্যুতিক পিলারের মূল তারের সংযোগ ঘটলে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
বৃহস্পতিবার (১৮ আগষ্ট) সকাল ৮ টার দিকে উপজেলার পৌরসভা এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম নাওডাঙার গ্রামের আদর্শ পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত নুরনবী মিয়া ঐ গ্রামের মফিজল হকের পুত্র।
এলাকাবাসী ও পরিবারের পক্ষ থেকে জানা যায়, সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির পাশের জমিতে ধানের চারা লাগানোর জন্য জমি প্রস্তুত করতে যায় নুরনবী। সেই জমির সীমানায় পোতানো বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে সংযুক্ত আর্থিং তারের গোড়ায় মাটি তুলে দেয়ার সময় কোদালের আঘাতে নড়বড়ে হয়ে যায় আর্থিং তারটি। পরে বাড়ি গিয়ে ঘটনাটি জানায় নুরনবী। পরে সে আবার জমিতে ফিরে এসে বিষয়টি বিদ্যুৎ অফিসকে না জানিয়ে নিজে নিজে ঠিক করার চেষ্টা শুরু করে। এ সময় আর্থিং তারটি বিদ্যুতের মূল তারের সাথে লেগে যায়। সাথে সাথে নুরনবী বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় এবং ঘটনাস্থলেই মারা যায়। মৃত্যুর বিষয়টি দ্রুতই ছড়িয়ে পড়লে পরে এলাকাবাসী বিদ্যুৎ অফিসে খবর দিয়ে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে নুরনবীর লাশ উদ্ধার করে এবং পুলিশকে খবর দেয়।
এদিকে একই দিনে দুপুর দেড়টায় কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে রফিকুল ইসলাম (৪৫) নামের এক কৃষক বৈদ্যুতিক সেচ দিয়ে পুকুরের পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে ফুলবাড়ী হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্য ঘোষনা করেন।
নিহত কৃষক উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের তোবার উদ্দিনের ছেলে।
উলিপুরের এই অনাকাঙ্খিত ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে পল্লী বিদ্যুতের উলিপুর উপজেলা জোনাল অফিসের এজিএম রাকিবুল হাসান বলেন, বিদ্যুতের আর্থিং তার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার বিষয়টি আমাদের আগে জানানো হলে আমরা নিজেরাই ঠিক করতাম। আমরা কাউকে নিজে নিজে এগুলো ঠিক করতে বলি না। ঘটনার পরপরই আমাদের লোক পাঠিয়ে মেরামত করেছি। এক্ষেত্রে সবাইকে আরও সচেতন হতে হবে।
উলিপুরের এই অনাকাঙ্খিত ঘটনা সম্পর্কে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ কবির বলেন, এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
ঢাকা অফিসঃ ১৬৭/১২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল ঢাকা- ১০০০ আঞ্চলিক অফিস : উত্তর তেমুহনী সদর, লক্ষ্মীপুর ৩৭০০