এরশাদের সঙ্গে জোটের ইঙ্গিত মির্জা ফখরুলের

Print Friendly
এরশাদের সঙ্গে জোটের ইঙ্গিত মির্জা ফখরুলের

ঢাকা : আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি জোটের সঙ্গে এরশাদের জাতীয় পার্টিও যোগ দিতে পারে বলে সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এমন আলোচনা এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে বেশ জোরেশোরে চলছে। এমন আলোচনার মাঝে সাংবাদিকদের বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসিতে কোনো সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেয়া যায় না।

জোট গঠনের সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিচ্ছেন না তিনি। মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্য আলোচনাকে আরও অনেক দুর নিয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বুধবার(৬ ডিসেম্বর) দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ ব্রিফিংয়ে ‘নির্বাচনী ঐক্য নিয়ে জাতীয় পার্টির সঙ্গে বিএনপির যোগাযোগ হচ্ছে’ বলে সংবাদমাধ্যমের খবরের বিষয়ে মির্জা ফখরুলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। তখন তিনি একথা বলেন।

ভবিষ্যতে জাতীয় পার্টির সঙ্গে বিএনপির জোট গঠনের সুযোগ আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপনাদের চিন্তাশক্তির জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। এটা পুরোপুরি অনুমান নির্ভর। হবে কি হবে না, তা ভবিষ্যৎ বলবে, হাঁসতে হাঁসতে বলেন তিনি।

তাহলে সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না- প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমরা কোনোটাই উড়াই না। পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসিতে কোনো সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেয়া যায় না। আওয়ামী লীগ যদি জামায়াতে ইসলামীর সাথে আন্দোলন করতে পারে এবং আসন বণ্টন করতে পারে অতীতে, তাহলে ভবিষ্যতে ইসলামী ঐক্যজোটের সাথে করতে পারে। তাহলে আপনার নাথিং ইজ ইমপসিবল ফর পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসি।

জাতীয় পার্টির নেতাদের সঙ্গে আপনাদের যোগাযোগ হচ্ছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এগুলোতে তো আপনি এখন জানতে পারবেন না। কারণ…। এই পর্যন্ত বলে আর কথা শেষ করেননি তিনি।

বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে ‘যুক্তফ্রন্ট’ গঠনকে স্বাগত জানিয়ে আওয়ামী লীগকে হঠাতে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, আগাম নির্বাচনে বিএনপির আপত্তি নেই। তবে তা নির্দলীয় সরকারের অধীনে হতে হবে। আমরা একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। সেটা যদি কালকে হয়, কালকেই চাই।