অন্তরঙ্গ দৃশ্যের জন্য মদ পান কারিনার!

Print Friendly
অন্তরঙ্গ দৃশ্যের জন্য মদ পান কারিনার!

সংগৃহীত ছবি

সিনেমায় নিজের চরিত্রকে ফুটিয়ে তুলতে বেশ পরিশ্রম করতে হয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের।   কিন্তু মাঝে মাঝে চরিত্রের প্রয়োজনে বিকল্প কিছু পন্থাও অবলম্বন করে থাকেন।

বিশেষ করে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করতে গেলে সৃষ্টি হয় অস্বস্তির।   এমন অস্বস্তিতে পড়েছিলেন পতৌদির নবাব পরিবারের পুত্রবধূ কারিনা কাপুর খান।   এমনকি অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয়ের জন্য মদপান করতে হয়েছিল তাকে।ঘটনাটি ঘটে মধুর ভান্ডারকরের ‘হিরোইন’ ছবিতে । ওই ছবিতে অভিনয় করেন অর্জুন রামপাল ও কারিনা কাপুর। যেখানে কারিনাকে অর্জুনের সঙ্গে একটি অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখা যায়। দৃশ্যটি নিয়ে বলিউড তখন রীতিমতো সরগরম ছিল। শুরুতে কারিনা নাকি মধুরকে পরিষ্কার জানিয়ে দেন, এ ধরনের দৃশ্য তিনি কিছুতেই করবেন না। কারণ, তখন এই বলিউড সুন্দরী পাতৌদির নবাব সাইফ আলী খানের বেগম হতে যাচ্ছেন।

তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আর কখনো কোনো অন্তরঙ্গ বা গভীর চুম্বনের দৃশ্য করবেন না। কিন্তু মধুরের জেদের কাছে হার মানতে হয় কারিনাকে।এবার আসা যাক এই অন্তরঙ্গ দৃশ্যের শুটিংয়ের প্রসঙ্গে। ‘হিরোইন’ ছবিতে কারিনা নিজের চরিত্রকে বাস্তবসম্মত করতে অনেক ধূমপান করেন। এমনকি তিনি মদ্যপানও করেছিলেন। ফলে দৃশ্যটি আরও বাস্তব হয়ে ওঠে। শোনা গেছে, একটি পাঁচ তারকা হোটেলের কক্ষে দৃশ্যটি ক্যামেরাবন্দী করা হয়। শুটিংয়ের সময় সেই কক্ষে কারিনা-অর্জুন ছাড়া ছিলেন পরিচালক মধুর ভান্ডারকর, প্রধান চিত্রগ্রাহক আর সংশ্লিষ্ট কয়েকজন। মধুর ভান্ডারকরের ‘হিরোইন’ বক্স অফিসে সাফল্য না পেলেও ছবিতে কারিনার অভিনয় খুবই প্রশংসিত হয়। আর এই অন্তরঙ্গ দৃশ্য নিয়ে রীতিমতো গবেষণা হয়েছে।