যুবলীগের সম্মেলনকে ঘিরে বর্ণিল সাজে লক্ষ্মীপুর

Print Friendly

Lakshmipur-Jubo-Lig-Pic-22.11.2017-1024x445

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দীর্ঘ ২৩ বছর পর লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের শনির দসা কাটতে চলেছে। আগামী কাল ২৩ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় শহরের আদর্শ সামাদ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন স্থলে নেওয়া হয়েছে সব ধরনের প্রস্তুতি। এ সম্মেলনকে ঘিরে বর্ণিল সাজে সেজেছে ঘোটা লক্ষ্মীপুর। শত-শত তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড আর আলোকসজ্জ্বায় বর্ণিল করে সাজানো হয়েছে জেলার প্রতিটি রাস্তা-ঘাটকে।

এদিকে এক আমন্ত্রন পত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী সম্মেলনের উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন।বিশেষ অতিথি হিসেবে সাবেক এমপি ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশিদ এবং প্রধান বক্তা হিসেবে বাংলাদেশ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশিদ উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক একেএম সালাহ উদ্দিন টিপুর সভাপতিত্বে আরো বিশেষ অতিথি হিসেবে লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের সাংসদ একেএম শাহজাহান কামাল, (লক্ষ্মীপুর-৪) সাংসদ মো. আবদুল্লাহ, মানিকগঞ্জ-২ সাংসদ মমতাজ বেগম (কণ্ঠশিল্পী), লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আতাউর রহমান আতা, সাংগঠনিক সম্পাদক আজহার উদ্দিন, সহ-সম্পাদক মো. রবিউল আলমসহ লক্ষ্মীপুর জেলা আ’লীগের সভাপতি মো. গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, পৌর মেয়র আবু তাহের, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সহ-সভাপতি ডাঃ এহসানুল কবির জগলুল সম্মেলনে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

এ উপলক্ষ্যে সম্মেলন স্থলেও নেওয়া হয়েছে সব ধরনের প্রস্তুতি। নৌকার সাজে সাজানো হয়েছে সভাস্থল। এখন শুধু সম্মেলনের অপেক্ষায় যুবলীগের দলীয় নেতা-কর্মীরা। কেন্দ্রীয় নেতাদের অভিনন্দন ও সম্মেলন সফল ও সার্থক করতে যুবলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাদের প্রচার-প্রচারণা এখন তুঙ্গে। সম্মেলনকে ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মীরা এখন ব্যস্ততম সময় কাটাচ্ছেন।

এছাড়া সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মাঝে আনন্দের জোয়ার বয়ছে। সম্মেলনকে সফল করতে স্থানীয় নেতা-কর্মীরা একের পর এক প্রস্তুতি সভা করছেন। এতে করে স্থানীয় যুবলীগের নেতা-কর্মীরা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। ইতি মধ্যে সম্মেলন উপলক্ষ্যে যুবলীগের কেন্দ্রী নেতাদের উপস্থিতে জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন সফল করতে নেতা-কর্মীদের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দলীয় সুত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিল ১৯৯৩ সালে। এর পর দীর্ঘ ২৩ বছর কেটে গেলেও লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের কোন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নী। পরে গত সাত বছর আগে ২০১১ সালে লক্ষ্মীপুর জেলা যুলীগের নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। তাঁতে সৈয়দ আহম্মদকে আহবায়ক, পৌর মেয়র তাহের পুত্র এ কে এম সালাহ্‌উদ্দিন টিপু ও এডভোকেট রহমতউল্যা বিপ্লবকে যুগ্ম আহবায়ক করা হয়।

এর পরে ২০১৬ সালে জেলা যুবলীগের আগের কমিটি ভেঙ্গে আবার নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। আগের কমিটির যুগ্ম আহবায়ক লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ্‌উদ্দিন টিপুকে আহবায়ক, শেখ জামাল রিপন ও বায়জিদ ভূঁইয়াকে যুগ্ম আহবায়ক করা হয়।

আগামী সম্মেলনে কে হচ্ছেন নতুন সভাপতি ও সম্পাদক? তা নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। এখন পর্যন্ত সভাপতি পদে একক প্রার্থী রয়েছেন জেলা যুবলীগের বর্তমান আহবায়ক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ্‌উদ্দিন টিপু। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী রয়েছেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক বায়েজিদ ভূঁইয়া, এডভোকেট রহমতউল্যা বিপ্লব, জেলা যুবলীগের সদস্য আবদুল্যা আল নোমান।

লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের আহবায়ক কে এম সালাহ্‌উদ্দিন টিপু বলেন, দীর্ঘ দুই যুগ পরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জেলা যুবলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ, উদ্দীপনা ও আনন্দের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। সম্মেলন সফল করতে সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সফল করতে  জেলার সবস্তরের নেতা-কর্মীদের সহযোগীতা কামনা করেছেন তিনি।