হৃদয়ের বিয়ে নিয়ে সাবেক স্ত্রী সুজানার প্রতিক্রিয়া

Print Friendly

2

জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক হৃদয় খানের তৃতীয় বিয়ের খবর মঙ্গলবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। হুমায়রা নামে এক তরুণীর সঙ্গে গত ১০ সেপ্টেম্বর ঢাকার ধানমন্ডিতে কনের বাসায় এ বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এর আগের দিন হয়েছে গায়ে হলুদ।হৃদয়ের বাবা সঙ্গীত পরিচালক রিপন খান বলেন, হৃদয়ের বিয়ের খবরটি সত্যি। আমরা দুই পরিবার মিলে তাদের বিয়ে দিয়েছি। এখানে আমাদের আত্মীয়স্বজনরা ছিলেন। সবার আশীর্বাদ নিয়ে তারা নতুন জীবন শুরু করেছে।

তিনি আরো বলেন, মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা শেষ করে এসেছে হুমায়রা। সে এখন হৃদয়ের বাসায় আছে। হুমায়রা হৃদয়ের স্কুলের বন্ধু। তারা একসঙ্গে ও লেভেল করেছেন। মাঝে অনেক দিন যোগাযোগ ছিল না। গত বছর আবার যোগাযোগ হয়। দু’জনের মধ্যে মন দেয়া-নেয়া চলছিল বেশ কয়েক মাস ধরে। অবশেষে এই ভালোবাসার সফল সমাপ্তি হলো বিয়ের মধ্য দিয়ে।এদিকে হৃদয়ের সাবেক স্ত্রী জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী সুজানা জাফর হৃদয়ের এ বিয়ে নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন।   তিনি বলেন, কয়েক মাস ধরে এই মেয়ের সঙ্গে সে প্রেম করছে। বিয়ে যেহেতু তারা করেছে, এখন আমার একটাই চাওয়া, হৃদয় যেন তার স্ত্রীর সঙ্গে সৎ থাকে। নতুন জীবন শুরুর প্রথম থেকেই স্ত্রীর কাছ থেকে যেন কোনো কিছু গোপন না করে।চার বছরের পরিচয়ের পর সুজানা ও হৃদয় ২০১৪ সালের আগস্টে  ঘরোয়া পরিবেশে বিয়ে করেন তারা। কিন্তু সংসার শুরুর চার পর তাদের মধ্য মনোমালিন্য শুরু হয়। আট মাসের মাথায় এ তারকা দম্পতি বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন।সুজানা বলেন, প্রেম ও বিয়ের আগে হৃদয় তার ভালোবাসার মানুষটির প্রতি খুব সিরিয়াস থাকে। সব ধ্যানজ্ঞান সেই ভালোবাসার মানুষকে ঘিরে। এরপর কেমন যেন বদলে যেতে থাকে। হৃদয় যেন ভবিষ্যতে আর কোনো ভুল না করে। সংসার ও সংসারের মানুষটির সম্পর্কের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়।সুজানা এখন ইতালির পার্লিমোতে অবস্থান করছেন।